২১ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নীলফামারী সরকারি মেডিক্যাল কলেজের যাত্রা শুরু

নীলফামারী সরকারি মেডিক্যাল কলেজের যাত্রা শুরু

স্টাফ রিপোর্টার, নীলফামারী ॥ অবশেষে বহু আকাঙ্খিত নীলফামারী সরকারি মেডিকেল কলেজে এমবিবিএস কোর্সের ভর্তি কার্যক্রম শেষে প্রথম বর্ষের পরিচিতমুলক ক্লাশ শুরু হলো। ঐতিহ্যবাহী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে শ্রদ্ধা জানিয়ে তার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের দিন আজ বৃহস্পতিবার সকালে জেলা সদরের পলাশবাড়ি নামকস্থানে নীলফামারী ডায়াবেটিকস হাসপাতালের নবনির্মিত চতুর্থতলা ভবনে নীলফামারী মেডিক্যাল কলেজের প্রথম ক্লাশ শুরু হয়। ক্লাশ শুরুর উদ্ধোধন অনুষ্ঠানে ৫০ জন শিক্ষার্থীকে ফুল দিয়ে বরন করে নেন অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি নীলফামারী সদর আসনের একাধারের চতুর্থবারের সংসদ সদস্য সাবেক সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।

এ সময় প্রধান অতিথি নূর তার বক্তব্যে বলেন নীলফামারীর গণ মানুষের দাবি ছিল এখানে একটি মেডিক্যাল কলেজ প্রতিষ্ঠার। বর্তমান সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সাবেক স্বাস্থমন্ত্রী মোহম্মদ নাসিম এ দাবিকে আমলে নিয়ে এ জেলা বাসীর স্বপ্ন পূরণ করেছে। এ ক্ষেত্রে সুনাম ও মর্যাদার সাথে মেডিকেল কলেজ পরিচালনার আহ্বান জানিয়ে নূর বঙ্গবন্ধুকে স্মরন করে আরো বলেন জাতির পিতার দেশ প্রেমের মতো আমাদের সকলের দেশ প্রেম জাগ্রত করতে হবে। কারন যে জাতীর দেশ প্রেম আছে সে জাতিকে কেউ দাবিয়ে রাখতে পারবেনা।

নীলফামারী মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. রবিউল ইসলাম শাহ-র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রংপুর বিভাগের স্বাস্থ্য পরিচালক অমল চন্দ্র সাহা, জেলা প্রশাসক নাজিয়া শিরিন, পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, সিভিল সার্জন ডা. রনজিৎ কুমার বর্মন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক মমতাজুল হক, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ডাঃ মমতাজুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক ডাঃ মজিবুল হাসান চৌধুরী শাহীন, সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আরিফা সুলতানা লাভলী, শিক্ষার্থীর অভিভাবক মজিবুর রহমান ও শিক্ষার্থী সাজ্জাদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন সুধীজন ও শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন।

সুত্র মতে অস্থায়ী ভাবে নীলফামারী ডায়াবেটিস হাসপাতালে মেডিক্যাল কলেজের ক্লাশ শুরু হলেও মেডিকেল কলেজের নিজস্ব ক্যাম্পাস নির্মানে জেলা সদরের নটখানায় ৩০ একর জমি অধিগ্রহন করা হয়েছে। চলতি বছরেই মেডিকেল কলেজের ভবনের নির্মান কাজ শুরু করা হবে।