১৯ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিওএ প্রধান হারদিক ও রাহুলের দুই ম্যাচ নির্বাসন চাইছেন

সিওএ প্রধান হারদিক ও রাহুলের দুই ম্যাচ নির্বাসন চাইছেন

অনলাইন ডেস্ক ॥ হারদিক পান্ডিয়া ও লোকেশ রাহুলের দুই ওয়ানডে ম্যাচে নির্বাসনের সুপারিশ করলেন প্রশাসকদের কমিটির (সিওএ) প্রধান বিনোদ রাই। কমিটির অন্যতম সদস্য ডায়না এডুলজি এই বিষয়ে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের আইনি শাখার পরামর্শ চেয়েছেন।

চিত্র পরিচালক কর্ণ জোহরের ‘কফি উইথ কর্ণ’ অনুষ্ঠানে এই দুই ক্রিকেটারের বলা মন্তব্যকে নারীবিদ্বেষী ও ‘সেক্সিস্ট’ হিসেবে চিহ্নিত হচ্ছে নানা মহলে। তাঁদের কিছু মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতেও। প্রবল সমালোচিত হয়েছেন এই দুই ক্রিকেটার। তুলনায় হারদিক ধিক্কৃত হয়েছেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে বুধবারই ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড শোকজ করেছিল দু’জনকে।

জানা গিয়েছে, লিখিত ভাবে বোর্ডের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন হারদিক। তার আগে সোশ্যাল মিডিয়াতেও ক্ষমাপ্রার্থনা করেছেন তিনি। রাহুল এখনও পর্যন্ত ক্ষমা চেয়েছেন কিনা, তা অবশ্য স্পষ্ট নয়। তিনি ঠিক কী জবাব দিয়েছেন বোর্ডকে, তাও পরিষ্কার নয়।

তবে হারদিকের জবাবে বোর্ড একেবারেই সন্তুষ্ট হয়নি। বিনোদ রাই বলেছেন, “হারদিকের উত্তর ভাল লাগেনি। সেই কারণেই দুই ক্রিকেটারকে দুই ম্যাচের নির্বাসনের সুপারিশ করেছি। ডায়না সবুঝ সঙ্কেত দিলেই এই ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।” তিনি আরও বলেন, “এই দু’জনকে ব্যান্ড করা যায় কিনা, তা নিয়ে আইনি পরামর্শ চেয়েছে ডায়না। ওর তরফ থেকে ইতিবাচক উত্তর পেলেই আমরা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেব। আমার মনে হয়েছে এই ধরনের মন্তব্য একেবারেই নিম্ন রুচির। যা কোনও ভাবেই মেনে নেওয়া যায় না।”

এর আগে ডায়না এডুলজি দুই ক্রিকেটারের কড়া শাস্তির দাবি তুলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, “এই ধরনের মন্তব্য দুঃখজনক। ক্রিকেটারদের কাজ দেশের প্রতিনিধিত্ব করা। বিষেণ সিংহ বেদির মতো ক্রিকেটারকেও সাতের দশকে এক টেলিভিশন শোয়ে যাওয়ার জন্য এক ম্যাচ নির্বাসিত করা হয়েছিল।” অর্থাৎ, বেদির যদি শাস্তি হয়, তবে এই দু’জন কেন ছাড়া পাবেন, প্রশ্ন তুলেছিলেন তিনি। যা পরিস্থিতি, তাতে হারদিক-রাহুলের অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজে খেলা অনিশ্চিত হয়ে পড়ল এই আবহে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া