১৯ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ওয়ানডেতেও দাপট দেখাতে চান কোহলি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ তিন ম্যাচের টি২০ ১-১এ ড্র করার পর ২-১এ টেস্ট জয়, অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে নতুন ইতিহাস সৃষ্টি করেছে ভারত। আজ থেকে শুরু হচ্ছে তিন ওয়ানডের সিরিজ। কয়েক মাস পর বিশ্বকাপ। পঞ্চাশ ওভারের সিরিজটা তাই দু’দলের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি জানিয়েছেন টেস্টের মতো ওয়ানডেতেও দাপট দেখিয়ে সফর শেষ করতে চায় তার দল। সহ-অধিনায়ক ও তারকা ওপেনার রোহিত শর্মা তো স্পষ্ট করে দিয়ে বলেছেন বিশ্বকাপের জন্য একটি আদর্শ স্কোয়াড তাদের এরই মধ্যে তৈরি হয়ে গেছে। অন্যদিকে দুঃসময় পেছনে ফেলে ওয়ানডতে ভাল কিছু করতে মরিয়া এ্যারন ফিঞ্চের অস্ট্রেলিয়া। সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ম্যাচ শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সকাল সোয়া আটটায়।

সুপার ভারতীয় অধিনায়ক কোহলি বলেন, ‘আমরা ওয়ানডেতে যে কোন কন্ডিশনে ভাল দল। এটি আমাদের সবচেয়ে বড় আত্মবিশ্বাস। এছাড়া এবার টেস্ট সিরিজ জয়ের রেকর্ড আমাদের সঙ্গে রয়েছে। তাই এই সফরে এবার ওয়ানডেতেও আমরা নিজেদের আরও একবার প্রমাণ করতে চাই। ওয়ানডেতে অস্ট্রেলিয়া ভাল দল। এই ফরম্যাটেও তারা ভাল করতে মুখিয়ে থাকবে। তবে আমাদের চেষ্টার কমতি থাকবে না। এছাড়া এই সিরিজটিকে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি হিসেবেই দেখছি।’ বিশ্বকাপের আগে যে ১৩ ওয়ানডে ম্যাচ খেলবেন কোহলিরা, সেই ম্যাচগুলোতে চূড়ান্ত প্রস্তুতি সারবেন তারা। এই ম্যাচগুলোতে যারা খেলবেন, তাদের বেশির ভাগই বিশ্বকাপেও খেলবেন বলে জানিয়েছেন রোহিত। সিডনিতে এক সংবাদ সম্মেলনে ভারতের রঙ্গিন পোশাকের সহ-অধিনায়কে বেশ আত্মবিশ্বাসী আর ফুরফুরে মেজাজে দেখা গেছে।

রোহিত বলেন, ‘আমরা এবার যে ১৩ ওয়ানডে ম্যাচ খেলব, সেগুলোতে যে দল খেলবে, সেটাই মোটামুটি আমাদের বিশ্বকাপ দল। চোট আঘাতের জন্য হয়তো দু-একটা পরিবর্তন হতে পারে। সারা বছর ধরে প্রচুর ক্রিকেট খেলেছি আমরা। তাই চোট আঘাত হতেই পারে। তবে ফিটনেস ও ফর্মের কারণ ছাড়া তেমন বড় কোন পরিবর্তনের সম্ভাবনা দেখছি না।’

তবে বিশ্বকাপের আগের এই ম্যাচগুলোতে যারা ভারতীয় দলের হয়ে মাঠে নামবেন, তারা যে প্রত্যেকেই জুনে ইংল্যান্ডের বিমানের টিকেট পাবেন, তার কোন নিশ্চয়তা নেই বলে মনে করেন রোহিত, ‘প্রত্যেককেই পারফর্মেন্স দেখাতে হবে বিশ্বকাপের আগে।’ গতবার ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়ায় ওয়ানডে সিরিজে ৪-১ এ হেরেছিল। সেবার টপ অর্ডারে রোহিত, শিখর ধাওয়ান ও কোহলি ভাল খেললেও মিডল অর্ডারের ব্যর্থতায় ডুবতে হয়েছিল। এ বার আর সেটি হবে না বলে আত্মবিশ্বাসী রোহিত।

অন্যদিকে টেস্ট সিরিজ হারের স্মৃতি ভুলে ওয়ানডে লড়াইয়ে ভালভাবে মনোনিবেশ করতে চান অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক এ্যারন ফিঞ্চ। ওয়ানডে সিরিজ জয়ের লক্ষ্যের কথা জানিয়ে ফিঞ্চ বলেন, ‘আমাদের লক্ষ্য ওয়ানডে সিরিজ জয়। টেস্ট সিরিজের স্মৃতি এখন অতীত। অতীত হয়ে যাওয়া সিরিজ নিয়ে ভেবে কোন লাভ নেই। ওয়ানডে নিয়ে বেশি-বেশি ভাবছি না। এই ফরম্যাটে আমরা দল হিসেবে ভাল করব। দলের সবাই ভাল করতে মুখিয়ে আছে। তবে কাজটি সহজ হবে না। কারণ দল হিসেবে ওয়ানডেতে খুবই শক্তিশালী ভারত। গেল এক বছর তারা সেরা পারফর্মেন্সই করেছে।’ সিরিজের প্রথম ম্যাচের জন্য একাদশ আগেই ঘোষণা করে দিয়েছে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। আট বছর পর ওয়ানডে দলে ফিরেছেন ডানহাতি পেসার পিটার সিডল। ভারতের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডের একাদশে রাখা হয়েছে সিডলকে।

এ বিষয়ে অধিনায়ক ফিঞ্চ বলেন, ‘আন্তর্জাতিক অঙ্গনে না খেললেও, বিগ ব্যাশ ও ঘরোয়া লিস্ট ‘এ’ তে ভাল পারফর্মেন্স করেছেন সিডল। তাই একাদশে তার সুযোগ পাওয়াটা প্রাপ্য ছিল। নিজেকে আবারও প্রমাণের জন্য পুরোপুরি তৈরি সিডল।’ নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ১৭ ওয়ানডে খেলেছেন ৩৪ বছর বয়সী সিডল। বল হাতে শিকার করেছেন ৩৪ উইকেট। ১৯৮০ থেকে মুখোমুখি ১২৮ ওয়ানডের ৭৩টিতে জয় অস্ট্রেলিয়ার, ভারতের সাফল্য ৪৫। আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে কোহলির ভারত এখন দ্বিতীয় ও অস্ট্রেলিয়া ষষ্ঠ স্থানে।