২৪ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কলেজ কিন্তু স্কুলই রয়ে গেল নামকরণে ॥ চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল

মাকসুদ আহমদ, চট্টগ্রাম অফিস ॥ কলেজ কিন্তু স্কুলই রয়ে গেল হিসেবের খাতায়। এটি হচ্ছে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল। গত আটবছর ধরে এ কলেজ থেকে চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ডের আওতায় এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করা হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সাইনবোর্ডে কোন পরিবর্তন আসেনি। চট্টগ্রামে মেধা তালিকায় আসা ২০টি কলেজের মধ্যে একটি কলেজের সাইনবোর্ডে কলেজের পরিবর্তে স্কুলই লেখা রয়েছে। শুধু তাই নয়, এইচএসসি পাস করা এ কলেজের শিক্ষার্থীদের প্রশংসাপত্রে স্কুলের নাম লেখা থাকে। ফলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ রয়েছে। কারণ এ কলেজের এইচএসসি পাস করা শিক্ষার্থীদের প্রশংসাপত্রের হেড লাইনটি রয়েছে স্কুলের নামে। একইভাবে এইচএসসি, পিএসসি ও জেএসসি পাস করা শিক্ষার্থীদের প্রশংসাপত্রেও কলেজিয়েট স্কুল লেখা থাকে।

অভিযোগ রয়েছে, ‘চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল’ এ নামটিতে কলেজিয়েট শব্দ লেখা থাকার কারণে এটিকে স্কুল এন্ড কলেজ লেখা যাচ্ছে না। আবার কলেজিয়েট নাম থাকার কারণে সরাসরি চট্টগ্রাম কলেজিয়েট কলেজও লেখা যাচ্ছে না বলে এ প্রতিষ্ঠানের এক শিক্ষকের পক্ষ থেকে জানা গেছে। পাশাপাশি শিক্ষার্থীরাও অভিযোগ করেছে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পর প্রতিষ্ঠানের নামে অবশ্য কলেজ শব্দটি লেখা থাকা প্রয়োজন। অন্যথায় পাবলিক কিংবা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে গেলে নানা প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়।

এদিকে, ভর্তির সময় মৌখিক পরীক্ষা বা সাক্ষাতকারে এ প্রতিষ্ঠানের সার্টিফিকেটটি উপস্থাপন করা হলে এইচএসসি ও এসএসসি উভয়ই প্রশংসাপত্রে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল লেখা থাকায় এ সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। এমনও দেখা গেছে, সর্বপ্রথম গত আট বছর ধরে বিভিন্ন সেশনে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়সহ বিভিন্ন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে কলেজিয়েট স্কুল থেকে এইচএসসি পাস করা এক শিক্ষার্থী ভর্তির সময় সাক্ষাতকারে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা সার্টিফিকেট দেখতে শিক্ষার্থীর পক্ষ থেকে দুটি প্রশংসাপত্রই একই দেয়া হয়। প্রশংসাপত্রের ভেতরের বিবরণে এইচএসসি ও এসএসসি আলাদা আলাদা থাকলেও প্রতিষ্ঠানের নামের কারণে প্রশংসাপত্রগুলো দেখতে একই রকম।

চট্টগ্রাম শিক্ষা বোর্ড থেকে শীর্ষে থাকা প্রত্যেকটি প্রতিষ্ঠানের নামের সঙ্গে কলেজ শব্দটি রয়েছে কিন্তু চিটাগাং কলেজিয়েট স্কুল। কলেজ তালিকায় থাকা চট্টগ্রামের শীর্ষ ২০ প্রতিষ্ঠানের তালিকায় থাকা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো হচ্ছে ফৌজদারহাট ক্যাডেট কলেজ, চিটাগাং কলেজ, গবর্নমেন্ট কমার্স কলেজ, গবর্নমেন্ট হাজী মুহম্মদ মহসিন কলেজ, চিটাগাং পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, ইস্পাহানি পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, চিটাগাং গবর্নমেন্ট গালর্স কলেজ, নৌবাহিনী স্কুল এন্ড কলেজ, কক্সবাজার গবর্নমেন্ট কলেজ, চিটাগাং গবর্নমেন্ট সিটি কলেজ, চিটাগাং ইঞ্জিনিয়ারিং স্কুল এন্ড কলেজ, ক্যান্টনমেন্ট ইংলিশ স্কুল এন্ড কলেজ, বিএএফ শাহীন কলেজ, আগ্রাবাদ মহিলা কলেজ, চিটাগাং ইউরিয়া ফার্টিলাইজার কলেজ, বাংলাদেশ মহিলা সমিতি গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজ, বান্দরবান ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ, কাপাসগোলা সিটি কর্পোরেশন মহিলা কলেজ, চিটাগাং ইউনির্ভাসিটি কলেজ ও চিটাগাং কলেজিয়েট স্কুল।

এ ব্যাপারে কলেজিয়েট স্কুলের এক শিক্ষক জনকণ্ঠকে জানিয়েছেন, চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল নামকরণের সঙ্গে কলেজিয়েট শব্দটি উল্লেখ রয়েছে। ফলে আলাদাভাবে কলেজ লেখার কোন সুযোগ নেই। তাছাড়া কলেজিয়েট শব্দটি হচ্ছে বিশেষণ। অর্থাৎ কলেজ বিষয়ক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই হচ্ছে কলেজিয়েট।