১৯ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরিশালে ভাঙ্গনের মুখে ২০ দলীয় জোট

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে চরম ভরাডুবির রেশ কাটতে না কাটতেই ২০ দলীয় জোটকে পাশ কাটিয়ে বিএনপির সিনিয়র নেতারা জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ায় ভাঙ্গনের মুখে পড়েছে জোটের কর্মকান্ড। জোট বিলুপ্তির পক্ষেও ২০ দলীয় জোটের নেতারা! ২০ দল বিলুপ্তির পক্ষে বরিশালের জোট নেতাদের দাবি, বিএনপি যদি ২০ দলীয় জোটের চেয়ে ঐক্যফ্রন্টকে বেশি গুরুত্ব দেয় তাহলে উপজেলা নির্বাচনের আগেই তারা জোট ভেঙ্গে আলাদাভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবেন। নাম প্রকাশ না করার শর্তে জোটের একাধিক নির্ভরযোগ্য সূত্র এসব তথ্য জানিয়েছেন। সূত্রে আরও জানা গেছে, গত ৮ জানুয়ারি ২০ দলীয় জোটকে পাশ কাটিয়ে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকের পরই এ ভাঙ্গনের সুর দেখা দিয়েছে। বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোটের শরীকদল বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির সিনিয়র এক নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, বিএনপির কতিপয় সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ২০ দলীয় জোটকে পাশ কাটিয়ে ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়েছে। যদি বিএনপির কাছে ২০ দলীয় জোট গুরুত্বহীন মনে হয় তাহলে শুধু নামেমাত্র জোট রেখে লাভ কি? তাই জোট বিলুপ্তির ঘোষণা করা এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র। ২০ দলের আরেক নেতা বলেন, ঐক্যফ্রন্ট বিএনপিকে কি দিয়েছে। কি লাভ হয়েছে ঐক্য করে। ২০ দলীয় জোট যদি ঐক্যফ্রন্ট ছাড়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন করত তাহলে ফলাফল আরও ভাল হতো।

তৃণমূল পর্যায়ের একাধিক বিএনপির নেতাকর্মী বলেন, ঐক্যফ্রন্টের নেতারা পরিকল্পিতভাবে বিএনপিকে ভুল পথে পরিচালিত করে সারাদেশে মনোনয়ন বাণিজ্যের মাধ্যমে প্রতিটি আসনে দু’জনকে মনোনয়ন দিয়ে দলের মধ্যে বিভাজনের সৃষ্টি করে চরম ভরাডুবি উপহার দিয়েছে। উদাহরণ দিয়ে নেতাকর্মীরা আরও বলেন, বরিশাল-৪ আসনে বিএনপির জনপ্রিয় নেতা সাবেক সংসদ সদস্য মেজবা উদ্দিন ফরহাদকে মনোনয়ন বঞ্চিত করে ঐক্যফ্রন্টের এক নেতাকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। যাকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে তাকে সাধারণ ভোটাররা তো দূরের কথা দলের নেতাকর্মীরাই চিনেন না। একইভাবে বরিশাল-১ আসনে তৃণমূল নেতাকর্মীদের মনোনীত প্রার্থী ইঞ্জিনিয়ার আব্দুস সোবাহানকে মনোনয়ন বঞ্চিত করে ১৩ বছর দলীয় নেতাকর্মীদের তোপের মুখে নিজ এলাকায় ঢুকতে না পারা জহির উদ্দিন স্বপনকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। ফলে বিএনপির বৃহৎ অংশের নেতাকর্মীরা নির্বাচনের মাঠে নামেননি। অনেকেই আবার দল পরিবর্তন করে আওয়ামী লীগে যোগদান করেছেন। এভাবেই প্রায় প্রতিটি আসনে মনোনয়ন ভুলের কারণে বিএনপিকে চরম ভরাডুবির স্বীকার হতে হয়েছে। বরিশাল বিএনপির সিনিয়র এক নেতা বিএনপি এখন নেতাহীন দল মন্তব্য করে বলেন, বিগত ওয়ান ইলেভেনের সময় বিএনপিতে মাইনাস টু ফর্মূলা (বেগম জিয়া ও তারেক রহমানকে বাদ দেয়া) বাস্তবায়নের জন্যই সংস্কারপন্থীদের আবির্ভাব হয়েছিল। দীর্ঘদিন পরে হলেও তাদের সেই ষোলোকলা আজ পূর্ণ হয়েছে। তিনি আরও বলেন, ঐক্যফ্রন্টের নামে কামাল-ফখরুল জোট যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে তাতে করে যেকোন সময় তারা শপথ নিয়ে মন্ত্রিসভায় যোগ দেবেন; এটা আমার বিশ্বাস।