১৯ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নেশার টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে নির্যাতন

নেশার টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে নির্যাতন

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী, বরগুনা ॥ নেশার টাকা না পেয়ে মাদ্রাসা ছাত্রী স্ত্রী খাদিজা আক্তারকে নির্যাতন করে স্বামী মহিবুল ইসলাম তনু। ঘটনা ঘটেছে আমতলী পৌর শহরের ওয়াবদা সড়কে শুক্রবার বিকেলে। আহত খাদিজাকে স্বজনরা উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেছে।

জানাগেছে, ২০১৬ সালে পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার উত্তর চাকামইয়া গ্রামের হাবিবুর রহমান তালুকদারের মাদ্রাসা পড়–য়া কন্যা খাজিদা আক্তারকে বরগুনা পৌর শহরের আমতলা সড়কের হাতেম আলী আকনের ছেলে মহিবুল ইসলাম তনুর সাথে বিয়ে দেন। বিয়ের সময় যৌতুক হিসেবে দুই লক্ষ টাকা ,দুই ভরি স্বর্নালংকার ও প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র দেয়। কিন্তু মাদকসেবী মহিবুল বিয়ের কিছু দিন যেতে না যেতেই নেশার টাকা জন্য স্ত্রী খাজিদাকে নির্যাতন শুরু করে। স্থানীয় লোকজন এসে খাদিজার এ অবস্থা দেখে স্বজনদের খবর দেয়। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। আজ শনিবার আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখাগেছে, খাদিজা শরীরের বিষম ব্যথায় কাতরাচ্ছেন। তার ডান চোখের নিচে রক্তাক্ত জখমের চিহৃ এবং তার মুখমন্ডল ফুলা রয়েছে।

আমতলী থানার ওসি মোঃ নুরুল ইসলাম বাদল বলেন, খবর পেয়ে হাসপাতালে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।