১৯ জানুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভোলার ইলিশা বাজারে অগ্নিকান্ড ॥ ৩৫ দোকান পুড়ে ছাই

ভোলার ইলিশা বাজারে অগ্নিকান্ড ॥ ৩৫ দোকান পুড়ে ছাই

নিজস্ব সংবাদদাতা, ভোলা ॥ ভোলার ইলিশা জংশন বাজারে ভয়াবহ এক অগ্নিকান্ডে প্রায় ৩৫ টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। প্রাথমিক ভাবে প্রায় ৭ কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে ক্ষতিগ্রস্তরা দাবী করেন। শনিবার রাতে ভোলা সদর উপজেলার ইলিশা জংশন বাজারের উত্তর বাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র এলাকায় এ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে।স্থানীয় ও ফায়ার সার্ভিস টিম প্রায় ২ ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে।শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত কোন হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এদিকে আগুন লাগার পর প্রায় ঘন্টা ধরে গ্রামীন ফোনসহ কয়েকটি মোবাইল অপারেটরের নেটওর্য়াক বন্ধ হয়ে যায়। এতে করে মানুষ ভোগান্তিতে পড়ে।

ক্ষতিগ্রস্থ দোকান মালিক ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রাত সাড়ে ৯ টার দিকে বাজারের আমিরের ওয়ার্কশপের দোকানে সটসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত হয় । এর পর একটি তৈল ও সিলিন্ডার গ্যাসের দোকানে আগুন লেগে গেলে মুহুর্তের মধ্যে আগুন চারদিকে ছড়িয়ে পড়ে । এ সময় মুদি দোকান, ২ টি টিভি’র শো-রুম, ৩ টি ইলেকট্রনিক্স দোকান, ৩ টি মোবাইলের শো রুম, ২ টি হার্ডওয়্যাারের দোকান, ২ টি সার-কিটনাশকের দোকান, হোটেলসহ প্রায় ৩৫ টি দোকান ও দোকানের মালামাল পুড়ে যায়। এতে প্রায় ৬/৭ কোটি টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে বলে দাবী করছেন ক্ষতি গ্রস্থ ব্যবসায়ীরা। এদিকে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেন, ফায়ার সার্ভিস টিম আগুন লাগার অনেকক্ষণ পর ঘটনা স্থলে যায়। দ্রুত তারা যদি ঘটনা স্থলে যেতো হা হলে অনেক দোকান রক্ষা পেত।

ভোলা ফায়ার সার্ভিসের উপ সহকারী পরিচালক মোঃ জাকির হোসেন জানান, তারা খবর পেয়ে ভোলা সদর থেকে ৩টি ইউনিট নিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনার জন্য কাজ শুরু করে। এর পর আগুনের ভয়াবহতা দেখে বোরহানউদ্দিন ,লালমোহন ও চরফ্যাশন ইউনিটকে খবর দেয়া হয়। পরে মোট ৬টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রনে আনেন। এদিকে আগুন লাগার খবর পেয়ে ভোলা থানার ওসি ছগির মিঞার নেতৃত্বে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে ও আগুন নিভাতে সহায়তা করে।

ভোলা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল হোসেন ঘটনা স্থল পরিদর্শন করে বলেন, ক্ষয়ক্ষতির পরিমান আনুমানিক দের কোটি টাকা। সরকারের পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সহায়তার চেষ্টা করা হবে।