২১ এপ্রিল ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জামালপুরে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা, এক বখাটে যুবক আটক

জামালপুরে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের চেষ্টা, এক বখাটে যুবক আটক

নিজস্ব সংবাদদাতা, জামালপুর॥ জামালপুর পৌরসভার কম্পপুর খাঁবাড়ি এলাকায় বৃহস্পতিবার রাতে অষ্টম শ্রেণির দ্ররিদ্র পরিবারের এক মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে রাসেল খাঁ নামের একজন বখাটেকে আটক করেছে পুলিশ। মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে শুক্রবার জামালপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে আটক বখাটেকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। অভিযোগে জানা গেছে, জামালপুর পৌরসভার কম্পপুর খাঁবাড়ি এলাকার দরিদ্র এক ইজিবাইকচালকের ১৪ বছরের মেয়ে স্থানীয় কে পি মডেল একাডেমি স্কুলে অষ্টম শ্রেণিতে পড়ে। মেয়েটি প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদের স্কুলে জেএসসি পরীক্ষার কোচিং ক্লাসে যায়। ক্লাশ শেষে রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ি ফেরার পথে প্রতিবেশী দুই বখাটে নয়ন খাঁ ও রাসেল খাঁ মেয়েটিকে জোরপূর্বক রাস্তার পাশে ক্ষেতে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। মেয়েটি চিৎকার দেওয়ার চেষ্টা করলে তারা তার মুখচেপে ধরে মারধর এবং ধর্ষণের চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে মেয়েটি ছুটে গিয়ে বাড়িতে তার মাকে জানায়। তার মা মেয়েকে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে বখাটে রাসেলকে ঝাপটে ধরে ফেলে। এ সময় নয়ন পালিয়ে যায়। রাসেলকে ধরেই মা-মেয়ে চিৎকার দিলে স্থানীয়রা ছুটে গিয়ে আটক রাসেলকে রাতেই মেয়েটির স্কুলে নিয়ে যায়। পরে বিদ্যালয় থেকে থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ সেখান থেকে রাসেলকে আটক করে। নির্যাতিতা মেয়েটির মা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯(৪)খ ও ৩০ ধারায় মেয়েকে ধর্ষণের চেষ্টা ও সহায়তা করার অভিযোগ এনে শুক্রবার সকালে জামালপুর সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় প্রতিবেশী মঙ্গল খাঁয়ের ছেলে নয়ন খাঁ (২১) এবং হাশেম খাঁয়ের ছেলে রাসেল খাঁকে আসামি করা হয়েছে। আটক রাসেলকে আদালতের মাধ্যমে জামালপুর জেলহাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ। জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: নাছিমুল ইসলাম জানান, মেয়েটিকে ধর্ষণের চেষ্টাকারী দুই বখাটের মধ্যে রাসেল খাঁ নামের একজনকে আটক করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। মামলাটির প্রধান আসামি নয়ন খাঁকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।