২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভিলিয়ার্সের আগেই সাব্বিরের বিধ্বংসী ব্যাটিং

ভিলিয়ার্সের আগেই সাব্বিরের বিধ্বংসী ব্যাটিং

অনলাইন ডেস্ক ॥ আজ ভিলিয়ার্স খেলতে নামেছে প্রথম ম্যাচ। এদিকে টসে হেরে সাব্বির বিধ্বংসী ব্যাটিংয়ে সিলেট সিক্সার্স গড়ল এবারের বিপিএলের সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ।

সাব্বিরের ব্যাট থেকে এসেছে ৫১ বলে ৮৫। বিপিএলে শনিবার সিলেটে রংপুর রাইডার্সের বিপক্ষে ২০ ওভারে ৪ উইকেটে ১৯৪ রান তুলেছে সিলেট সিক্সার্স। খুলনা টাইটানসের বিপক্ষে ঢাকা ডায়নামাইটসের ১৯২ ছিল এবারের আসরের আগের দলীয় সর্বোচ্চ।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা সিলেট দ্বিতীয় ওভারে হারায় লিটন দাসকে। কবজির মোচড়ে দারুণ শটে মাশরাফিকে ছক্কা মেরেছিলেন লিটন। পরের বলে আরেকটি ছক্কার চেষ্টায় ক্যাচ দেন স্লোয়ারে।

আফিফ হোসেন তিনে নেমে নাজমুল ইসলামকে অপুকে স্লগ করে ছক্কায় শুরু করেন। পরের ওভারের মাশরাফর বলে ব্যাটের কানায় লেগে চার পান আফিফ। তার তুলে মারা আরেকটি শটে ক্যাচ নিতে গিয়ে চার বানিয়ে দেন ফরহাদ রেজা। বারবার বেঁচে যাওয়া আফিফকে (১১ বলে ১৯) দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ে সরাসরি থ্রোয়ে ফেরান রাইলি রুশো।

সাব্বির ততক্ষণে ডানা মেলে দিয়েছেন। তার ব্যাট থেকে বল উড়ছে মাঠের নানা প্রান্তে। ফরহাদ, সোহাগ, নাহিদুল, গেইল, সবাইকে দিয়েছেন ছক্কার স্বাদ। বাংলাদেশের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে বিপিএলে পেরিয়ে যান পঞ্চাশ ছক্কা। নিজের ফিফটি স্পর্শ করেন ৩৪ বলে। দ্বিতীয় স্পেলে ফিরে মাশরাফ ফিরিয়ে দেন ডেভিড ওয়ার্নারকে। দেশে ফিরে যাওয়ার আগে শেষটা রাঙিয়ে যেতে পারেননি। সিলেট অধিনায়ক করেছেন ২১ বলে ১৯।

সিলেট অবশ্য ভুগতে হয়নি এজন্য। পুরান আসার পর বরং আরও গতিময় হয় ইনিংস। উদ্ভাবনী সব শটে এই ক্যারিবিয়ান বল ফেলার জায়গা দিচ্ছিলেন না রংপুরের বোলারদের। জুটির পঞ্চাশ আসে কেবল ২৭ বলেই। সাব্বির আউট হন ইনিংসের শেষ ওভারে। শফিউলের বলে ধরা পড়েন সীমানায়। আগের ৫ ইনিংস মিলিয়ে রান করেছিলেন ৫৬। এ দিন ৫ চার ও ৬ ছক্কায় ৮৫। শেষ দুই বলে ব্যাট ছোঁয়াতে না পারায় ফিফটি হয়নি পুরানের। ৪টি চার ও ৩ ছক্কায় অপরাজিত থাকেন ২৭ বলে ৪৭ রানে।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

সিলেট সিক্সার্স: ২০ ওভারে ১৯৪/৪ (লিটন ১১, সাব্বির ৮৫, আফিফ ১৯, ওয়ার্নার ১৯, পুরান ৪৭*, জাকের ৫*; নাজমুল ২-০-১৮-০, মাশরাফি ৪-০-৩১-২, শফিউল ৪-০-৪৩-১ ফরহাদ ৩-০-৩৫-০, নাহিদুল ২-০-১৬-০, গাজি ২-০-১৬-০, গেইল ৩-০-৩৪-০)।