২২ ফেব্রুয়ারী ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এই আউটের সিদ্ধান্ত হয়ে থাকল চরম বিতর্কিত

 এই আউটের সিদ্ধান্ত হয়ে থাকল চরম বিতর্কিত

অনলাইন ডেস্ক ॥ হটস্পটে দেখা গেল ব্যাটে বল লাগার দাগ। তবুও রিভিউয়ে এলবিডব্লিউ দেওয়া হল নিউজিল্যান্ডের মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান ড্যারিল মিচেল। যা প্রশ্ন তুলে দিল ডিআরএস পদ্ধতি নিয়েই।

অকল্যান্ডের ইডেন পার্কে নিউজিল্যান্ডের ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারের ঘটনা। বাঁ-হাতি স্পিনার ক্রুনাল পান্ড্যর ষষ্ঠ বলে এলবিডব্লিউ হন ড্যারিল মিচেল। অবাক ব্যাটসম্যান সঙ্গে সঙ্গে রিভিউ নেন। মিচেল হাবেভাবে বোঝান যে ব্যাটে বল লেগেছে তাঁর।

রিভিউয়েও তা দেখা যায়। হটস্পটে দেখা যায় বল ব্যাটে লাগার চিহ্ন। মনে করা হচ্ছিল যে আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত ফিরিয়ে নেবেন। কিন্তু দেখা যায় আম্পায়ার ফের আঙুল তোলেন। ব্যাখ্যা উঠে আসে যে স্নিকোয় শব্দের কোনও আওয়াজ ধরা পড়েনি। তার জন্যে আউটের সিদ্ধান্ত বহাল রাখেন তৃতীয় আম্পায়ার শন হেগ। আর তাঁর থেকে সঙ্কেত পেয়েই ‘অনফিল্ড’ আম্পায়ার আউটের সিদ্ধান্ত ফের জানান। যা দেখে হতচকিত হয়ে পড়েন মিচেল। নন-স্ট্রাইকার প্রান্তে থাকা কিউই অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন মিচেলকে তখন বলেন অপেক্ষা করতে। ভারতের উইকেটরক্ষক মহেন্দ্র সিংহ ধোনি এই সময় কথা বলেন কেন উইলিয়ামসনের সঙ্গে। ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে দেখা যায় কথা বলতে। অভূতপূর্ব বিভ্রান্তির জন্ম নেয় মাঠে। তারপর ড্যারিল মিচেল হাঁটতে থাকেন সাজঘরের উদ্দেশে। ধারাভাষ্যকার সাইমন ডুল বলে ওঠেন, “এটা হাস্যকর।”

ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা একমাত্র চাইলে ডেকে নিতে পারতেন ড্যারিল মিচেলকে। কিন্তু, তিনি তা করেননি। ফলে, এই আউটের সিদ্ধান্ত হয়ে থাকল চরম বিতর্কিত। ইলিয়ামসনও অবাক হয়ে যান। তিনি অসন্তোষ জানিয়েও দেন আম্পায়ারকে।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা