২৪ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শেরপুরে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল কিশোরী

শেরপুরে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল কিশোরী

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেয়েছে ১৪ বছরের এক কিশোরী। রবিবার রাতে উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের খৈলকুড়া গ্রামে ইউএনও রুবেল মাহমুদ উপস্থিত হয়ে বিয়েটি ভেঙে দেন। ওইসময় ১৮ বছরের আগে ওই কিশোরীর বিয়ে দেবেন না মর্মে কনে ও বর পক্ষের পরিবারের কাছ থেকে অঙ্গীকারনামাও নেওয়া হয়।

জানা যায়, রবিবার রাত ৯টার দিকে ঝিনাইগাতী উপজেলার নলকুড়া ইউনিয়নের নূনখোলা গ্রামের এক যুবকের সাথে ওই কিশোরীর বিয়ের প্রস্তুতি চলছিল। খবর পেয়ে ইউএনও রুবেল মাহমুদ কিশোরীর বাড়িতে গিয়ে বিয়ের আয়োজন দেখতে পান। পরে তিনি কিশোরীর পরিবার ও বর পক্ষের লোকজনকে বাল্যবিয়ের কুফল সম্পর্কে বুঝিয়ে ওই বিয়ে বন্ধ করতে বলেন। অন্যথায় আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানালে ইউএনও’র কথা মেনে দু’পক্ষের অভিভাবকেরা ওই বাল্যবিয়ে বন্ধ করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বাল্যবিয়ের খবর পেয়ে কিশোরীর বাড়িতে গিয়ে বিয়ে বন্ধ করা হয়েছে।