১১ ফেব্রুয়ারী ২০১৯

শেরপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ২ কোচিং সেন্টার বন্ধ

শেরপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ২ কোচিং সেন্টার বন্ধ

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ সরকারি নির্দেশ অমান্য করে কোচিং চালু রাখার দায়ে শেরপুরে অভিযান চালিয়ে ‘সাত রং’ ও ‘রং ধনু’ নামে ২টি কোচিং সেন্টার বন্ধ দিয়েছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। সোমবার বিকেলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান শাওনের নেতৃত্বে ওই অভিযান চালানো হয়। ওইসময় ওইসময় কোচিং সেন্টার সংশ্লিষ্ট মোট ১৭ জনের কাছ থেকে মুচলেকা নেওয়া হয়।

জানা যায়, এসএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ২৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের সকল কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়। তারপরও সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে শেরপুরের বিভিন্ন স্থানে বিশেষ ক্লাশের নামে কোচিং চলছে। এর প্রেক্ষিতে সোমবার বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে শহরের মাধবপুর এলাকায় সাত রং নামে কোচিং সেন্টারে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

ওইসময় সাত রং কোচিং সেন্টারের পরিচালক হারুন অর রশিদ সুমনসহ অন্যান্য শিক্ষকম-লী তাদের কোচিংয়ের কার্যক্রম বন্ধ রাখার লিখিত মুচলেকা দেন। পরে তাদের সতর্ক করে দেওয়াসহ কোচিং সেন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয়। এছাড়া শহরের তেরাবাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে রংধনু কোচিং সেন্টার খোলা পাওয়া যায়। পরে ওই কোচিং সেন্টারের পরিচালক হাফিজুল ইসলাম ও এনামুল হকের কাছ থেকে লিখিত মুচলেকা নিয়ে কোচিং সেন্টারটি বন্ধ করে দেওয়া হয়। অভিযানকালে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মাহমুদুল হক, সদর থানার এসআই ফজলু হকসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এ বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমান শাওন বলেন, সরকারি নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে বিশেষ ক্লাশের নামে কোচিং চালানোর কারণে ২টি কোচিং সেন্টার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। তারা ভবিষ্যতে আর এ ধরনের কাজ করবে না মর্মে মুচলেকা নেওয়া হয়েছে। ভবিষ্যতেও এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।