২০ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আরেকটি সম্মাননা হারালেন সু চি

আরেকটি সম্মাননা হারালেন সু চি

অনলাইন ডেস্ক ॥ মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে ব্যাপক নিধন অভিযান চালালেও তাতে মুখ বন্ধ রাখার প্রেক্ষিতে একে একে আন্তর্জাতিক পুরস্কার ও সম্মাননা হারাচ্ছেন দেশটির ডি ফ্যাক্টো নেত্রী অং সান সু চি। এবার আয়ারল্যান্ডের গালওয়ে শহর সু চিকে দেয়া সম্মাননা ফিরিয়ে নিল।

গালওয়ে শহর কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে রোহিঙ্গাদের অধিকার নিয়ে কাজ করা আয়ারল্যান্ডভিত্তিক সংগঠন রোহিঙ্গা অ্যাকশন আয়ারল্যান্ড। এক বিবৃতিতে সংগঠনটি বলছে, ‘গালওয়ে শহর কর্তৃপক্ষের এ সিদ্ধান্ত রাখাইনে হওয়া গুরুতর অপরাধের স্পষ্ট নিন্দা। আর এর মাধ্যমে এটা আরও পরিস্কার হয়েছে সু চির নিরবতা নিন্দিত হওয়ার যোগ্য।’

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের বিরুদ্ধে দেশটির সেনাবাহিনী নিধন অভিযান ও ব্যাপক মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনার ব্যাপারে অবস্থান নিতে ব্যর্থ হওয়ার কারণে বিশ্বজুড়ে সু চি নিন্দিত হয়েছেন। আর তাই কানাডাসহ বিশ্বের অনেক দেশ বিশ্ববিদ্যালয় ও সংগঠন তাকে দেয়া পুরস্কার ও সম্মাননা ফিরিয়ে নেয়।

রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর মিয়ানমার সরকার ও দেশটির সেনাবাহিনীর ধারাবাহিক নির্যাতনের ব্যাপারে সু চি তার নিশ্চুপ ভূমিকার কারণে সমালোচিত হয়েছেন। তিনি এমনকি যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূতকে এমন অনুরোধও জানিয়েছেন যেন রোহিঙ্গাদের এই নামে উল্লেখ করা না হয়।

মিয়ানমারে গণতন্ত্র শুরু হওয়ার পর ২০১৫ সালে সু চি দেশটির উপদেষ্টা হন। তিনি এখন দেশটির প্রশাসনের প্রধান ব্যক্তি। হামলার অভিযোগ এনে মিয়ানমার নৃশংস নিপীড়ন চালায় সংখ্যালঘু রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর।

২০১৭ সালের সেই সেনা অভিযানের পর সাড়ে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা দেশ ছেড়ে পালিয়ে বাংলাদেশে এসে আশ্রয় নেয়। সেনাবাহিনীর এমন নৃশংস ঘটনার বিরুদ্ধে নিন্দা জানানোর জন্য সু চি আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পড়েন। তবে তিনি তা করতে অস্বীকৃতি জানান।