২০ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কাশ্মিরিদের বাঁচাতে হেল্পলাইন চালু

কাশ্মিরিদের বাঁচাতে হেল্পলাইন চালু

অনলাইন ডেস্ক ॥ ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু এবং কাশ্মিরের বাইরে বসবাসরত কাশ্মিরিদের দেশটির এক শ্রেণীর উগ্রপন্থি মানুষের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া থেকে রক্ষা করতে হেল্পলাইন চালু করা হয়েছে।

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরের পুলওয়ামাতে ভারতীয় কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনী সিআরপিএফের বহরের ওপর ভয়াবহ হামলায় অন্তত ৪৪ জন সেনাসদস্য মর্মান্তিক ভাবে নিহত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র দেশটি জুড়ে কাশ্মিরিরা এক শ্রেণীর উগ্রপন্থি মানুষের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়ার মুখে পড়ছেন বলে নানা খবর প্রকাশিত হয়েছে।

ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লি থেকে শুরু করে বিভিন্ন প্রদেশে বসবাসরত কাশ্মিরিরা এ ধরণের হুমকির মুখে পড়ার খবর প্রকাশিত হয়েছে। কোথাও কোথাও এক শ্রেণীর উগ্রপন্থি ক্ষুব্ধ মানুষ ছাত্রাবাস ঘেরাও করে সেখান বসবাসরত কাশ্মিরি ছাত্রদের বের করে দেয়ার দাবি জানিয়েছে। আর এসব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কাশ্মিরিদের রক্ষা করতে ‘মদদগার’ নামের হেল্পলাইন চালু করেছে সিআরপিএফ।

এ দিকে, কাশ্মিরের বাইরে বসবাসরত ছাত্র ও সাধারণ কাশ্মিরিদের জানমাল রক্ষায় প্রয়োজনীয় সব ব্যবস্থা নেয়ার জন্য দেশটির সব রাজ্যকে গতকাল নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র। ভারতের সর্ব দলীয় বৈঠকে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং কাশ্মিরিদের রক্ষায় সব ধরণের ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে নিশ্চয়তা দেয়ার পরই এ নির্দেশ দেয়া হয়। পাশাপাশি চালু হয় ‘মদদগার।’

সিআরপিএফ জানিয়েছে, সপ্তাহে প্রতিদিন এবং দিনরাত ২৪ ঘণ্টা মানে ২৪/৭ চালু থাকবে এ হেল্পলাইন। ফোনের মাধ্যমে যোগাযোগের জন্য যোগাযোগকারীর কাছ থেকে কোনো টাকা-পয়সা কাটা হবে না। অর্থাৎ বিনা পয়সায় যোগাযোগ করা যাবে। এসএসএমের মাধ্যমে যোগাযোগের জন্যও নম্বর দেয়া হয়েছে। এ ছাড়া, ‘মদদগারের’ সঙ্গে টুইটারের মাধ্যমেও যোগাযোগ করা যাবে।

ভারতের কেন্দ্রীয় আধা সামরিক বাহিনী সিআরপিএফে তিন লাখের বেশি সদস্য রয়েছে। ভারতের প্রায় সব রাজ্যেই এ বাহিনী মোতায়েন আছে বলে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন সিআরপিএফের শীর্ষ এক কর্মকর্তা।