২৪ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজশাহী নগরীকে আবারো চ্যাম্পিয়ন করার অঙ্গিকার মেয়রের

রাজশাহী নগরীকে আবারো চ্যাম্পিয়ন করার অঙ্গিকার মেয়রের

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের (রাসিক) মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন মহানগরী হিসেবে আগেও প্রথম হয়েছিল রাজশাহী। পরিচ্ছন্নতায় দেশের মধ্যে আবারো চ্যাম্পিয়ন হবে রাজশাহী। চলতি বছরের মধ্যেই পলিথিন ও ময়লা-আবর্জনা মুক্ত শহর হবে রাজশাহী বলে অঙ্গিকার করেন তিনি।

তিনি বলেন বাংলাদেশের মধ্যে সবার আগে রাজশাহী সিটি কর্পোরেশন পলিথিন মুক্ত, দুর্গন্ধমুক্ত পরিচ্ছন্ন নগরী হিসেবে গড়ে তোলা হবে। এজন্য তিনি সকলের সহযোগীতা কামনা করেন।

সোমবার সকালে রাজশাহী কলেজ মিলনায়তনে পরিচ্ছন্ন নগরী গড়তে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বিডিক্লিনের সদস্যদের শপথগ্রহণ, সদস্যদের ভুমিকা ও পুর্নমিলনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আমরা আমাদের ঘরবাড়ি নিজেদের মনে করে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখি। কিন্তু রাস্তাঘাট, খেলার মাঠ, শিশুপার্ক এসবকে আমরা নিজের মনে করি না। সেখানে যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেলি। যেখানে-যেখানে ময়লা ফেলার এই অভ্যাস পরিবর্তন করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের পরিচ্ছন্ন কর্মচারীরা সারারাত জেগে নগরীকে পরিচ্ছন্ন করে, ঝকঝকে সুন্দর করে। কিন্তু দিন শুরুর পর পরই সেই চেহারা পরিবর্তন হতে থাকে। যত্রতত্র ময়লা-আবর্জনা ফেলে অপরিচ্ছন্ন করে ফেলা হয়। এক্ষেত্রে সবাইকে সচেতন হতে হবে।

পরিচ্ছন্নতায় রাজশাহী কলেজকে দৃষ্টান্ত উল্লেখ করে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহী কলেজ ক্যাম্পাসে প্রতিদিন হাজার হাজার শিক্ষার্থী আসে। এতো শিক্ষার্থীর পদচারণার পরও কলেজ ক্যাম্পাস সব সময় পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন থাকে। রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ ক্যাম্পাস পরিচ্ছন্নতায় যে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, তা আমরা অনুসরণ করতে পারি।

মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতি বৃহস্পতিবার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম চালানোর নির্দেশনা দিয়েছেন। এই উদ্যোগের কারণে সবার মধ্যে সচেতনতা বাড়বে এবং অভ্যাস গড়ে উঠবে।

বিডিক্লিন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, পরিচ্ছন্ন নগরী গড়তে বিডিক্লিনের সদস্যরা যে শপথবাক্য পাঠ করলেন, তা অন্তরে ধারণ করে বিডিক্লিনের সদস্য সংখ্যা বাড়বে। কার্যক্রম বিস্তৃতি লাভ করবে। একদিন ঝকঝকে চকচকে কাঙ্খিত বাংলাদেশ পাবো আমরা।

রাজশাহী কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর হবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ ও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা স্থায়ী কমিটির সভাপতি সরিফুল ইসলাম বাবু, টির্চাস ট্রেনিং কলেজের অধ্যাপক শিরিন আখতার, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা রাজশাহী অঞ্চলের পরিচালক ড. আব্দুল মান্নান সরকার।

প্রধান আলোচক ছিলেন বিডিক্লিনের প্রধান সমন্বয়ক ফরিদ উদ্দিন। এরআগে পরিচ্ছন্ন নগরী গড়তে রাজশাহী কলেজ শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে বিডিক্লিন সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করান রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন।

নির্বাচিত সংবাদ