১৯ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

’৭০-এর মতোই এবার আওয়ামী লীগের পক্ষে গণরায় এসেছে

  • রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনা

সংসদ রিপোর্টার ॥ সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণ সম্পর্কিত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকারী দলের সদস্যরা বলেছেন, সত্তরের নির্বাচনের মতোই একাদশ জাতীয় নির্বাচনে জনজোয়ারের সৃষ্টি হয়েছিল। দেশের জনগণ উন্নয়ন, সমৃদ্ধি ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পক্ষে থাকা বঙ্গবন্ধুর কন্যা শেখ হাসিনার পক্ষে সত্তরের মতোই গণরায় দিয়েছে। জঙ্গীবাদ-সন্ত্রাস-দুর্নীতি-অগ্নিসন্ত্রাসী বিএনপি-জামায়াতকে আবারও ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করেছে।

ডেপুটি স্পীকার এ্যাডভোকেট ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে সোমবার রাতে রাষ্ট্রপতি ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নেন সাবেক গৃহায়ন ও গণপূর্ণমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, সাবেক মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ, সরকারী দলের জোয়াহেরুল ইসলাম, আহসানুল ইসলাম টিটু ও বিরোধী দল জাতীয় পার্টির আহসান আদেলুর রহমান। ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ বলেন, সত্তরের নির্বাচনের মতোই এবার একাদশ জাতীয় নির্বাচনেও গণমানুষের জোয়ার উঠেছিল। সত্তরের নির্বাচনে যে অভ‚তপূর্ব দৃশ্য দেখেছি, তারই যেন পুনরাবৃত্তি ঘটেছিল ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনেও। সত্তরের নির্বাচনে দেশের মানুষ বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৬ দফার পক্ষে, স্বাধীনতার প্রশ্নে আওয়ামী লীগের পক্ষে গণরায় দিয়েছিলেন। ঠিক তেমনি এবারের একাদশ জাতীয় নির্বাচনে গত ১০ বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের যে অভাবনীয় উন্নয়ন করেছেন, যার সুফল দেশবাসী পাচ্ছেন। চট্টগ্রামের পুরাতন সার্কিট হাউসে জিয়া স্মৃতি জাদুঘর নামটি পরিবর্তন করে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর নামকরণের দাবি জানিয়ে তিনি বলেন, জিয়াকে কেউ কেউ স্বাধীনতার ঘোষক বলতে চান। কিন্তু আমরা ছিলাম এ ঘটনার অন্যতম সাক্ষী। জিয়াউর রহমান যে স্থানে নিহত হয়েছেন, সেখানে তাঁর স্মৃতি রাখা হলে আমাদের কোন আপত্তি থাকবে না। সাবেক মন্ত্রী নারায়ণ চন্দ্র চন্দ বলেন, দেশ আজ প্রতিটি সেক্টরে এগিয়ে যাচ্ছে। উন্নয়ন-সমৃদ্ধির মহাসড়ক দিয়ে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে। জাতীয় পার্টির আহসান আদেলুর রহমান বলেন, আগামী প্রজন্মকে আগামীতে দেশের হাল ধরার জন্য প্রস্তুত করতে হবে। জোয়াহেরুল ইসলাম বলেন, লন্ডনে বসে দুর্নীতিগ্রস্ত লন্ডনে বসে দেশের বিরুদ্ধে এখনও ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার মূল পরিকল্পনাকারী ছিল এই তারেক রহমান। আমরা তার ফাঁসির দাবি জানাচ্ছি।