১৯ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আমিরাতের দুই কোম্পানি বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী

আমিরাতের দুই কোম্পানি বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী

অনলাইন ডেস্ক ॥ বাংলাদেশে বিনিয়োগ করতে আগ্রহী সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) গুরুত্বপূর্ণ দু’টি কোম্পানি। দেশটির লুলু গ্রুপ ইন্টারন্যাশনাল ও এনএমসি গ্রুপ বাংলাদেশে স্বাস্থ্যসেবা, হোটেল, বিপণি বিতান ও পর্যটন খাতে বিনিয়োগের জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে।

মঙ্গলবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আবাস্থল হোটেল স্যুটে এক সৌজন্য সাক্ষাতে এসে এ দুই ব্যবসায়ী গ্রুপের প্রধানরা। তারা হলেন- লুলু গ্রুপের চেয়ারম্যান ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইউসুফ আলী এবং এনএমসি গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ড. বি আর শেঠি।

শেখ হাসিনার সঙ্গে সংযুক্ত আরব আমিরাতের ব্যবসায়ী নেতাদের বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের বিষয়টি জানান। তিনি বলেন, লুলু গ্রুপ বাংলাদেশে একটি বিপণি বিতান নির্মাণ করতে চায়। প্রদানমন্ত্রীকে এই গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেন, তাদের এই পরিকল্পনা বাস্তবায়িত হলে প্রায় পাঁচ হাজার মানুষের কাজের সুযোগ সৃষ্টি হবে।

এছাড়া একটি কনভেনশন সেন্টার ও তিনহাজার গাড়ির জন্য পার্কিং সুবিধা সৃষ্টিরও পরিকল্পনার কথাও প্রধানমন্ত্রীকে জানান গ্রুপটির প্রধান। লুলু গ্রুপের চেয়ারম্যান ইউসুফ আলী বলেন, বড় বড় বিপণি বিতান ও পর্যটন খাতে বিনিয়োগের জন্য সম্ভাবনাময় ক্ষেত্র হিসেবে বাংলাদেশ বিবেচিত হচ্ছে।

এ জন্য রাজধানী ঢাকা বা এর আশপাশে সংলগ্ন এলাকায় জমি চেয়েছেন তিনি। এ সময় ইউসুফ আলী বিভিন্ন দেশে লুলু গ্রুপের বাস্তবায়িত বিভিন্ন প্রকল্পের কথা তুলে ধরেন।

বিদেশি বিনোয়োগকারীদের বাংলাদেশে স্বাগত জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দেশের উন্নয়নের লক্ষ্যে বিদেশি বিনিয়োগকে স্বাগত জানাতে বাংলাদেশ প্রস্তুত।

এ সময় প্রয়োজনীয় জমি বরাদ্দের ব্যাপারে ইউসুফ আলীকে আশ্বস্ত করেন প্রধানমন্ত্রী। একই সঙ্গে তিনি তাদের বাণিজ্যিক পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে সরেজমিন অভিজ্ঞতার জন্য ব্যবসায়ীদের বাংলাদেশ সফরের আহ্বান জানান। বাংলাদেশে খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ শিল্প এবং বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের জন্য লুলু গ্রুপের চেয়ারম্যানের প্রতি আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

শেখ হাসিনা বলেন, শুল্কমুক্ত সুবিধাসহ বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জন্য খুবই আকর্ষণীয় সুযোগ-সুবিধা দিচ্ছে বাংলাদেশ। এদিকে বৈঠকে ‘বিনামূল্যে চিকিৎসা, মানসম্মত, সাশ্রয়ী ও নৈতিকতা অনুশীলন’-এর ভিত্তিতে বাংলাদেশে মানবিক কার্যক্রম ও স্বাস্থ্যসেবা সম্প্রসারণের আগ্রহ প্রকাশ করেন এনএমসি গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা ড. বি আর শেঠি। বাংলাদেশে ক্যান্সার ও হৃদরোগের চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল নির্মাণের জন্য প্রস্তাব দিতে এনএমসি গ্রুপকে আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী।

এনএমসি গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেন, পরিকল্পনা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার জন্য তারা বাংলাদেশ সফর করবেন। প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম বলে, শেখ হাসিনার চলমান আরব আমিরাত সফর সফল। এই সফর আকাঙ্ক্ষার চেয়েও বেশি ফলদায়ক হবে।

বৈঠককালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী ইমরান আহমেদ এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব মো. নজিবুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।