২০ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী লুলু ও এনএমসি গ্রুপ

বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী লুলু ও এনএমসি গ্রুপ

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ বাংলাদেশের স্বাস্থ্য, পর্যটন, রিটেল ই-চেন শপসহ বিভিন্ন খাতে বিনিয়োগের আগ্রহ দেখিয়েছে আবুধাবিভিত্তিক লুলু গ্রুপ ও এনএমসি গ্রুপ। আবুধাবি সফররত প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে মঙ্গলবার সকালে তার আবাসস্থল হোটেল সেন্ট রেগিজে দেখা করেন লুলু গ্রুপের চেয়ারম্যান ইউসুফ আলী এবং এনএমসি গ্রুপের চেয়ারম্যান বি আর শেঠী। বৈঠক শেষে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের বলেন, ‘লুলু গ্রুপের চেয়ারম্যান বলেছেন, অনেক এরিয়া রয়েছে যেসব খাতে ‘উদ্ভাবন করা যায়। পর্যটন, হাইপার মার্কেট। ‘উনি ঢাকার কাছে এবং বাইরে জমি চেয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীও বলেছেন, দেয়া হবে।’ লুলু গ্রুপের অধীনে বিশ্বের বিভিন্ন জায়গায় হাইপার মার্কেট রয়েছে। লুলু গ্রুপের চেয়ারম্যান বাংলাদেশে পাঁচ তারকা হোটেল করার কথাও বলেছেন জানিয়ে ইহসানুল করিম বলেন, ‘নীতিগতভাবে তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তারা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করবেন।’ বাংলাদেশে বিনিয়োগের নানা সুবিধা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, ‘দেশকে উন্নত করার জন্য, এগিয়ে নেয়ার জন্য আমরা বিনিয়োগ চাই।’

বিডিনিউজ জানায়, এনএমসি গ্রুপ বাংলাদেশে হাসপাতাল করতে চায় বলে জানান প্রেস সচিব। ক্যান্সার ও হৃদরোগের জন্য বিশেষায়িত হাসপাতাল করতে গ্রুপের চেয়ারম্যান বৈঠকে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বলে জানান তিনি। এক প্রশ্নের জবাবে ইহসানুল করিম বলেন, প্রধানমন্ত্রীর আবুধাবি সফর ‘খুবই সফল’ হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে গালফ নিউজ ও খালিজ টাইমসকে সাক্ষাতকার দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে যোগ দিয়ে রবিবার আবুধাবি সফরে আসেন শেখ হাসিনা। জার্মানি সফর শেষে রবিবার সকালে মিউনিখ থেকে আবুধাবি পৌঁছান শেখ হাসিনা। গত ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে জয়ী হয়ে টানা তৃতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের পর এটাই তার প্রথম বিদেশ সফর। রবিবার সকালে আবুধাবিতে আন্তর্জাতিক প্রতিরক্ষা প্রদর্শনী ও নেভাল ডিফেন্স এ্যান্ড মেরিটাইম সিকিউরিটি প্রদর্শনীতে অংশ নেয়ার পর দুপুরের ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগ প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন শেখ হাসিনা। রবিবার বিকেল বাংলাদেশের বিদ্যুত, জ্বালানি ও অর্থনৈতিক অঞ্চল বিষয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে সমঝোতা স্মারক সই করেছে। সোমবার সকালে আবুধাবি এক্সিজিবশন সেন্টারে শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক হয় আরব আমিরাতের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী এবং আমিরাত অব দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মাদ বিন রশিদ আল মাকতুমের। দুপুরে রাজকীয় প্যালেসে আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স শেখ মোহাম্মদ বিন জায়েদ আল-নাহিয়ানের সঙ্গে বৈঠক করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এছাড়া আবুধাবির বাহার প্যালেসে ইউএই’র প্রতিষ্ঠাতা ও প্রথম প্রেসিডেন্ট এবং আবুধাবির শাসক মরহুম শেখ জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ানের স্ত্রী শেখ ফাতিমা বিনতে মুবারক আল কেতবির সঙ্গে দেখা করেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সেন্ট রেগিজ হোটেলে প্রবাসী বাংলাদেশীদের দেয়া এক নাগরিক সংবর্ধনায় অংশ নেবেন তিনি। বুধবার সকালে ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে শেখ হাসিনার।