১৬ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চেলসিকে বিদায় করে শেষ আটে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

চেলসিকে বিদায় করে শেষ আটে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

জাহিদুল আলম জয় ॥ এরচেয়ে মধুর প্রতিশোধ বুঝি আর হয় না। গতবার এই চেলসির কাছে হেরেই ইংলিশ এফ এ কাপের শিরোপা খোয়াতে হয়েছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে। সবমিলিয়ে ঐতিহ্যবাহী এই আসরে আগের চার ম্যাচেই ব্লুজদের কাছে হারের তেতো স্বাদ পেতে হয়েছিল রেড ডেভিলসদের। অবশেষে হারের গেরো ভাঙ্গতে সক্ষম হয়েছে ম্যানইউ।

সোমবার রাতে চলমান এফএ কাপের শেষ ষোলোর ম্যাচে স্বাগতিক চেলসিকে ২-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে অতিথি ম্যানইউ। চেলসির মাঠ লন্ডনের স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে এই জয়ে আসরের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে গেছে ভারপ্রাপ্ত কোচ ওলে গানার সোলসজায়েরের দল। আর বাজে হারে চেলসি কোচ মরিজিও সারির ছাঁটাই হওয়ার সম্ভাবনা আরও জোরালো হয়েছে। গত মৌসুমের ফাইনালের কথা ভুলে যায়নি ইউনাইটেড। ইডেন হ্যাজার্ডের পেনাল্টি থেকে পাওয়া গোলে ম্যানইউকে হারিয়ে শিরোপা ঘরে তুলেছিল চেলসি। তাছাড়া টানা হারের গ্লানি তো ছিলই। যে কারণে ম্যাচটি জিততে মুখিয়ে ছিল ইংল্যান্ডের সবচেয়ে সফল ক্লাবটি।

২০১৭ সালের ফাইনালের পর এই প্রথম এফএ কাপে হারের স্বাদ পেয়েছে চেলসি। নিজের প্রথম মেয়াদে হতাশাজনক মৌসুমের জন্ম দিয়ে সারি এখন বিদায়ক্ষণ গণনা করছেন। চলতি মাসের শুরুতে ম্যানচেস্টার সিটির কাছে প্রিমিয়ার লীগে ৬-০ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ার ম্যাচটি ছিল ২৮ বছরের ইতিহাসে চেলসির সবচেয়ে বড় পরাজয়। আগের সপ্তাহেই এফসি বোর্নমাউথের কাছে ৪-০ গোলে পরাজিত হয়েছে সারির দল। গুঞ্জন ছিল খেলোয়াড়দের সমর্থন ইতোমধ্যেই হারিয়ে ফেলেছেন সারি। একের পর এক পরাজয়ে মূলত শুধু খেলোয়াড়ই নন ক্লাব কর্মকর্তারাও সারির ব্যাপারে নতুন করে ভাবতে শুরু করেছে। গত ১০ ম্যাচে চেলসি পঞ্চম পরাজয়ের মুখ দেখেছে।

বর্তমানে চেলসি প্রিমিয়ার লীগের শীর্ষ চার থেকেও বাইরে। বৃহস্পতিবার ইউরোপা লীগের শেষ ৩২-এর দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে মালমোর বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আবারও মাঠে ফিরছে ব্লুজরা।

প্রথম লেগে তারা জিতেছে ২-১ গোলে। এ নিয়ে টানা পঞ্চমবারের মতো শেষ আটে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে ইউনাইটেড। ২০১৬ সালের পর প্রথম ও রেকর্ড স্পর্শকারী ১৩ বারের মতো এফএ কাপের শিরোপা জয়ে তারা সঠিক পথেই আছে। গত সপ্তাহে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শেষ ষোলোর প্রথম লেগের লড়াইয়ে পিএসজির কাছে ২-০ গোলে হারের পর ইউনাইটেডের এই ফিরে আসাটা দুর্দান্ত। প্রথম ১১ ম্যাচে সুলশারের অধীনে ইউনাইটেড অপরাজিত ছিল। এরপর পিএসজির কাছে ছন্দপতন হলেও আবারও স্বরূপে ফিরেছে দলটি। ম্যাচে মধ্যমাঠের দুরন্ত ফর্মেশনের কারণেই জয় পেয়েছে ম্যানইউ। এমনকি গোলক্ষক ডেভিড ডি গিয়ার স্থানে মূল একাদশে গোলরক্ষক হিসেবে খেলানো হয়েছে আর্জেন্টিনার সার্জিও রোমেরোকে।

প্রথমদিকে রোমেরোকে অবশ্য কঠিন পরীক্ষাই দিতে হয়েছে। ইউনাইটেডের দেয়ালের ওপর দিয়ে ডেভিড লুইজের ফ্রিকিক দক্ষতার সঙ্গেই রুখে দেন তিনি। পেড্রোর শক্তিশালী শট পায়ের সাহায্যে ফিরিয়ে দেন। সিজার আজপিলিকুয়েটার ক্রসে গঞ্জালো হিগুয়াইন গোল প্রায় করেই ফেলেছিলেন।

কিন্তু তার শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এই ভুলগুলোই শেষ পর্যন্ত চেলসিকে হতাশ করেছে। ৩১ মিনিটে বাম উইং থেকে পল পোগবার ক্রসে গোল করে সফরকারীদের এগিয়ে দেন আন্ডের হেরেরা। ডিসেম্বরের পর এটি স্প্যানিশ মিডফিল্ডারের প্রথম গোল। ৪৫ মিনিটে অনেকটা একক প্রচেষ্টায় পোগবা ইউনাইটেডের ব্যবধান দ্বিগুণ করেন।

ম্যাচ শেষে চেলসি কোচ সারিকে উদ্দেশ করে স্বাগতিক সমর্থকরা গ্যালারি থেকে বলেন, ‘তুমি নিজেও জান না তুমি কি করছো, কাল সকালেই তুমি বরখাস্ত হচ্ছো।’ তাদের দাবি সাবেক তারকা ও বর্তমানে ডার্বিতে কোচের দায়িত্বে তাকা ফ্র্যঙ্ক ল্যাম্পার্ডকেই সারির স্থলাভিষিক্ত করা হোক। যদিও চেলসি মালিক রোমান আব্রামোভিচ এখনও সারির বরখাস্তের পক্ষে মত দেননি।

নির্বাচিত সংবাদ