১৬ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুখোমুখি এ্যাটলেটিকো-জুভেন্টাস, শালকে-ম্যানসিটি

  • উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ফুটবলের শেষ ষোলোর প্রথম লেগে আজ রাতে দু’টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। জার্মান ক্লাব শালকে জিরো ফোরের আতিথ্য নিচ্ছে ইংলিশ পরাশক্তি ম্যানচেস্টার সিটি। আরেক ম্যাচে স্পেনের মাদ্রিদে স্বাগতিক এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের মুখোমুখি হচ্ছে ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস। দু’টি ম্যাচই শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ২টায়।

সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে না হলেও এ ম্যাচের মধ্য দিয়ে মাদ্রিদে ফেরা হচ্ছে সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর। ২০১৪ ও ২০১৬’র রানার্সআপ মুখোমুখি ২০১৫ ও ২০১৭ সালের রানার্সআপের। দুই দলের শিরোপা ক্ষুধাও এই দ্বৈরথটাকে না জমিয়ে পারে না। রিয়ালের মাঠে না হলেও রোনাল্ডোর মাদ্রিদ আগমনে পুরো ফুটবল দুনিয়া মুখিয়ে আছে জমজমাট লড়াই উপভোগের জন্য। রিয়ালে থাকাকালে রোনাল্ডোর অন্যতম ফেবারিট প্রতিপক্ষ ছিল এই এ্যাটলেটিকো। জুভেন্টাসকে শিরোপা উপহার দেয়ার মিশনে পুরনো শত্রুর বিপক্ষে নিশ্চয়ই আবার জ্বলে উঠতে চাইবেন তিনি। জুভেন্টাসের ভাইস প্রেসিডেন্ট পাভেল নেদভেদেরও বাজি রোনাল্ডোর পক্ষে। তিনি বলেন, চ্যাম্পিয়ন্স লীগের খেলোয়াড় হলো রোনাল্ডো। কঠিন এ লড়াইয়ে আবারও সে তা দেখাবে।

এদিকে জুভেন্টাসকে একটি ‘পারিবারিক আবহের ক্লাব’ বলে মনে করেন গত বছর দলটিতে যোগ দেয়া এমরে কান। রিয়াল মাদ্রিদ থেকে আসা তারকা ফরোয়ার্ড রোনাল্ডোকে ড্রেসিংরুমে কোন আলাদা সুবিধা দেয়া হয় না বলেও দাবি করেন জার্মান এই মিডফিল্ডার। গত বছরের ঘ্রীষ্মকালীন দল বদলে রোনাল্ডো ও কানকে দলে নেয় ইতালিয়ান চ্যাম্পিয়নরা। আগের ক্লাব লিভারপুলের সঙ্গে চুক্তি শেষ হয়ে যাওয়ায় ফ্রি ট্রান্সফারেই কানকে পায় তুরিনের ওল্ডলেডিরা। অল্প সময়েই কোচ ম্যাসিমিলিয়ানো এ্যালেগ্রির অধীনে জুভেন্টাসের শুরুর একাদশে নিজের জায়গা পাকা করেছেন ২৫ বছর বয়সী এই ফুটবলার। অবশ্য নিজের প্রথম মৌসুমে এখন পর্যন্ত সিরি’এ দলের সর্বোচ্চ ১৯ গোল করা রোনাল্ডো প্রচারের আলো অনেকটাই টেনে নিয়েছেন। তবে ড্রেসিংরুমে সবাই সমান বলে জানিয়েছেন কান। সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, জুভেন্টাস একটা পরিবার। একটা পারিবারিক আবহের ক্লাব, সত্যি। বিশ্বের সবচেয়ে সেরা খেলোয়াড় রোনাল্ডো এখানে আছে। কিন্তু ড্রেসিংরুমে সে অন্যদের থেকে আলাদা নয় এবং স্বাভাবিক আচরণ করে। সবাই একই পর্যায়ের। কেউ বাড়তি কোন সুবিধা পায় না, আমরা পরিশ্রম করি, তারপর আমরা মজা করি। এগুলো কাজে প্রভাব ফেলে, কারণ আপনি সবসময় ভাল মেজাজে অনুশীলন করতেই মাঠে ঢোকেন।

সবধরনের প্রতিযোগিতাতেই এবার দারুণ ফর্মে আছে ম্যানসিটি। প্রিমিয়ার লীগে শিরোপা ধরে রাখার লক্ষ্যে ভালমতোই এগোচ্ছে তারা। তবে দলটির আপসোস, চ্যাম্পিয়ন্স লীগ জিততে না পারা। তারকা কোচ পেপ গার্ডিওলার অধীনে এবার সেই বন্ধাত্ব ঘোচাতে মরিয়া সিটিজেনরা। সে লক্ষ্যেই শেষ ষোলোতে শালকের মুখোমুখি সিটি। ম্যাচটি জিততে আত্মবিশ্বাসী হলেও জার্মান প্রতিপক্ষকে সমীহ করছেন সিটি সব গার্ডিওলা। সাবেক বার্সিলোনা কোচ বলেন, চ্যাম্পিয়ন্স লীগ অনেক কঠিন জায়গা। সব দলই এখানে সেরাটা দিয়ে থাকে। জার্মানিতে জয় পাওয়া সহজ হবে না। আমরা প্রতিপক্ষকে সম্মান করছি, তবে জয় ছাড়া অন্য কিছু ভাবছি না।

নির্বাচিত সংবাদ