১৮ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পদ্মা সেতুতে যুক্ত হলো আরেকটি স্প্যান

পদ্মা সেতুতে যুক্ত হলো আরেকটি স্প্যান

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ পদ্মা সেতুতে যুক্ত হলো আরও একটি স্প্যান। আজ বুধবার দুপুর সোয়া ১২ টার দিকে জাজিরা প্রান্তে ৩৫ ও ৩৬ নম্বর খুঁটির ওপর ধূসর রঙের ‘৬ই’ নম্বর এই স্প্যানটি বসিয়ে দেয়া হয়। এই নিয়ে জজিরা অংশে সেতুটি দৃশ্যমান হলো ১০৫০ মিটার। এছাড়া মাওয়া প্রান্তে আরও দৃশ্যমান রয়েছে ১৫০ মিটার। দেড়শ’ মিটারের একটি একটি করে আটটি স্প্যান বসে ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে পদ্মা সেতু। এরই মধ্য দিয়ে পদ্মা সেতুর অগ্রগতি আরেক ধাপ এগিয়ে গেল। সেতুর এই অগ্রগতিতে খুশি পদ্মা পাড়ের মানুষ।

প্রকৌশলীরা ইতোপূর্বে ৭টি স্প্যান বসানোর অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে সকাল থেকে স্প্যানটি বসানোর কাজ শুরু হয়। খুঁটিনাটি বিষয়গুলো এর আগে থেকেই পর্যবেক্ষণ করে। ওয়েট টেস্ট, ট্রায়াল লোড টেস্ট, বেজ পেটেন্ট, পাইল পজিশন, মেজারমেন্টসহ আনুষাঙ্গিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা সফলভাবে শেষ হয়। স্প্যান বহনকারী ক্রেনটিকে পিলারের ৩৫ ও ৩৬ নম্বর পিলারের পজিশন অনুযায়ী রাখা হয়। এরপর লিফটিং ক্রেনের সাহায্যে রাখা হয় পিলারের ওপর। বেয়ারিংয়ের ওপর রাখা হয়েছে স্প্যানটিকে। দেশি-বিদেশি প্রকৌশলীদের চেষ্টায় জটিলতা ছাড়াই সফলভাবে বসানো হয় ‘৬ই’ নম্বর স্প্যানটি। এছাড়া আগামী ১০ মার্চের মধ্যে জাজিরা প্রান্তে ৩৪ ও ৩৫ নম্বর খুঁটির ওপর ৬-ডি নামের আরেকটি স্প্যান বসানোর কথা রয়েছে। এদিকে পদ্মায় এখন নেই তীব্র স্রোত, কেটে গেছে নকশা জটিলতা। সময়টা অনুকূলে, আর সেটাকে কাজে লাগিয়ে নদী জুড়ে এখন চলছে কাজ। এর আগে জাজিরা প্রান্তে ৬টি ও মুন্সীগঞ্জের মাওয়া প্রান্তে অস্থায়ীভাবে ১টি স্প্যান বসানো হয়। এখন জাজিরা প্রান্তে ৭টি স্প্যান বসে গেল।

পদ্মা সেতুর এক দায়িত্বশীল প্রকৌশলী জানান, সেতুর সব খুঁটির নকশা সম্পন্ন হওয়ায় এখন সেতুটি দ্রুত সম্পন্ন করার ক্ষেত্রে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে চাপ দেয়া হয়েছে। তারা যাতে দ্রুত সময়ের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করেন। সবকিছু মিলিয়ে এখন সেতুর উপর দিয়ে যান চলাচল হচ্ছে ২০২০ সালে এটি প্রায় চূড়ান্ত। কেউ কেউ সেতু দিয়ে যান পারাপার ’২০ সালের জুনের কথা বলছেন। তবে ২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে যানবাচন চলাচল করবে এটি একেবারেই চূড়ান্তভাবে বলা যায় বলে দৃঢ়ভাবে দায়িত্বশীল এক প্রকৌশলী নিশ্চিত করেছেন।