২৬ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিদ্ধিরগঞ্জে ৫ জন নিখোঁজের ১০ দিন পর ৪ জনকে উদ্ধার

সিদ্ধিরগঞ্জে ৫ জন নিখোঁজের ১০ দিন পর ৪ জনকে উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার, নারায়ণগঞ্জ ॥ নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে নিখোঁজের দশদিন পর একই পরিবারের নিখোঁজ পাচঁজনের মধ্যে চারজনকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ রাজধানীর কেরানীগঞ্জ ও ব্রাক্ষণবাড়িয়া থেকে তাদের উদ্ধার করে নারায়ণগঞ্জে নিয়ে আসে। আজ বুধবার দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা পুুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ এসব তথ্য জানান। তিনি জানান, উদ্ধারকৃতরা হলো জামাল সরদারের বড় মেয়ে আশামনি (১১), প্রিয়া মনি (৪) ও তার ভায়রার মেয়ে সোমাইয়া (১৪) ও শ্যালকের ছেলে আজিম (৭)। তবে নিখোঁজ রয়েছে তার স্ত্রী ফরিদা ওরফে নিপা (৩০)।

পুলিশ সুপার জানান, সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানী নগর নুরবাগ এলাকার এমদাদুল হক ভুইয়া পাঁচ তলার বাড়ির ভাড়াটিয়া গার্মেন্টস কর্মকর্তা জামাল সরদারের স্ত্রী ফারিদা ওরফে নীপা ও তার দুই মেয়েসহ একই পারিবারের পাঁচ সদস্য নিখোঁজ হয়। বিষয়টি গার্মেন্টস কর্মকর্তা জামাল সরদার সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন। পরে পুলিশ আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে জামাল সর্দারের ভায়রার ছেলে নাজিম উদ্দিন ওরফে আজিমকে ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ ইকুরিয়া এলাকার নূরআনী মাদ্রাসা থেকে, বড় মেয়ে আশা মনিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া ল্যাবরেটরী আবাসিক স্কুল থেকে, ছোট মেয়ে প্রিয়া মনি এবং ভাইরার মেয়ে সোমাইয়াকে কেরানীগঞ্জ একটি এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়।

এসপি হারুন অর রশীদ জানান, উদ্ধারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের প্রাথমিক ভাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে গার্মেন্টস কর্তাকর্তার স্ত্রী ফরিদা ওরফে নীপা পরকীয়া প্রেমের টানে সুমন নামের এক ছেলের সাথে ঘর ছেড়ে পালিয়ে যায়। তবে যাওয়ার আগে পরিকল্পিত ভাবে ছেলে মেয়েদের বিভিন্ন স্থানে রেখে যায়। ফরিদকা ওরফে নিপা যাওয়ার সময় ঘর থেকে টাকা পয়সা ও স্বর্ণলংকার নিয়ে যায়। তিনি আরো জানান, এ ঘটনায় স্বামী জামাল সরদার বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ স্ত্রী ফরিদা ওরফে নীপা ও তার পরকীয়া প্রেমিক সুমনকে গ্রেফতারের জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে।

উল্লেখ্য গত ১০ ফেব্রুয়ারী সিদ্ধিরগঞ্জের মাদানী নগর নুরবাগ এলাকায় থেকে একই পরিবারে পাচঁ সদস্য নিখোজ হয়। বিষয়টি গণমাধ্যমে প্রকাশিত হলে এলাকায় ব্যাপক আলোচিত হয়।