২৪ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সৌদির কাছে পরমাণু প্রযুক্তি বিক্রি আমেরিকার ভণ্ডামি ॥ ইরান

সৌদির কাছে পরমাণু প্রযুক্তি বিক্রি আমেরিকার ভণ্ডামি ॥ ইরান

অনলাইন ডেস্ক ॥ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সৌদি আরবের কাছে পরমাণু প্রযুক্তি বিক্রির চেষ্টা করছেন বলে যে খবর বেরিয়েছে তাকে আমেরিকার ভণ্ডামি ও দ্বৈত চরিত্রের প্রমাণ বলে মন্তব্য করেছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ। তিনি বলেছেন, একদিকে ইরানকে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করতে দেয়া হচ্ছে না এবং অন্যদিকে রিয়াদকে হাতে তুলে এই প্রযুক্তি উপহার দেয়া হচ্ছে।

জারিফ তার অফিসিয়াল টুইটার পেজে লিখেছেন, “আমাদের কাছে সব সময়ই যে বিষয়টি সুস্পষ্ট ছিল তা দিন দিন বিশ্ববাসীর কাছে স্পষ্ট হতে শুরু করেছে: মানবাধিকার বা পরমাণু কর্মসূচি কোনোটিই আমেরিকার জন্য উদ্বেগের বিষয় নয়।”

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী তার টুইটার বার্তায় গত অক্টোবরে সৌদি ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগির হত্যাকাণ্ড এবং তা ধামাচাপা দিতে আমেরিকার সহযোগিতার প্রতিও ইঙ্গিত করেন। তিনি বলেন, এ ঘটনায় মানবাধিকার বিষয়ে আমেরিকার দ্বৈত চরিত্র প্রকাশ পেয়েছে।

জারিফ তার বার্তায় আরো লিখেছেন: “প্রথমে একজন সাংবাদিকের দেহ টুকরা টুকরা করা হলো; আর এখন সৌদি আরবের কাছে নিষিদ্ধ পরমাণু প্রযুক্তি বিক্রি করার ঘটনায় আমেরিকার ভণ্ডামি ও দ্বৈত চরিত্র প্রকাশ পেয়েছে।”

এর আগে গতকাল মার্কিন কংগ্রেসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আমেরিকা তড়িঘড়ি করে সৌদি আরবকে অত্যন্ত স্পর্শকাতর পরমাণু প্রযুক্তি সরবরাহ করছে। এ তৎপরতায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সরাসরি সম্পৃক্ত রয়েছেন।

২৪ পৃষ্ঠার এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের নজরদারি এবং সংস্কার কমিটি। এতে ট্রাম্প সরকারের তৎপরতা তুলে ধরা হয়। সৌদিতে পরমাণু বিদ্যুৎ কেন্দ্র তৈরিতে মার্কিন কোম্পানিগুলোর প্রতি রিয়াদের আনুকূল্য লাভের আশায় এ সব তৎপরতা চালানো হয়েছে। প্রতিবেদনে বলা হয়, এতে পরমাণু অস্ত্র প্রযুক্তি বিস্তারের ঝুঁকি বেড়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ