২০ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যে প্রক্রিয়ায় স্বজনরা মরদেহ পাবেন

যে প্রক্রিয়ায় স্বজনরা মরদেহ পাবেন

অনলাইন রিপোর্টার ॥ যেসব মরদেহ স্বজনরা সহজেই শনাক্ত করতে পারছেন সেগুলো আজই যথাযথ প্রক্রিয়া শেষে হস্তান্তর করা হবে। কিন্তু যেসব মরদেহ শনাক্ত করা যাচ্ছে না তাদের ফিঙ্গার প্রিন্ট নিয়ে শনাক্তের চেষ্টা করা হবে। যদি সেটিতে শনাক্ত হয়ে যায় তাহলে তাদের মরদেহও স্বজনরা গ্রহণ করতে পারবেন। তবে যেসব মরদেহ একেবারেই শনাক্ত করা যাচ্ছে না, সেগুলো ডিএনএ পরীক্ষার পর দেয়া হবে।

এজন্য কিছুটা সময় লাগবে। বললেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক মেডিসিন বিভাগের প্রধান অধ্যাপক ডা. সোহেল মাহমুদ।

বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেললে তিনি এসব কথা বলেন। ডা. সোহেল মাহমুদ বলেন, ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৬৭টি মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। নিহত ও নিখোঁজদের স্বজনরা ভিড় করেছেন সেখানে। যথাযথ প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।

তিনি বলেন, এক-তৃতীয়াংশ মরদেহ পুড়ে ছাই হয়ে যাওয়ার অবস্থা। এসব মরদেহের ডিএনএ টেস্টের মাধ্যমে শনাক্তের কাজ করতে হবে।

ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, মরদেহগুলো এমনভাবে পুড়ে গেছে যে কঙ্কালের মতো হয়েছে। সে ক্ষেত্রে ডিএনএ পরীক্ষা করাতে হবে। পুড়ে যাওয়া অনেক মরদেহের চেহারাও চেনা যায় না। আর কেমিক্যালের মতো দাহ্য পদার্থে পুড়ে গেলে বিষয়টি আরও কঠিন হয়ে যায়।

গতকাল বুধবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে চকবাজারে চুড়িহাট্টা মসজিদের পাশের একটি ভবনে আগুনের সূত্রপাত হয়। পরে আশপাশের আরও কয়েকটি ভবনে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। এরপর ফায়ার সার্ভিসের ৩৭টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে। ভয়াবহ এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৭০টি লাশ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা।