২০ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পুরাতন রড ব্যবহার করে ব্রিজ তৈরী দুদকের অভিযান, ঠিকাদারের ১ বছরের জেল

পুরাতন রড ব্যবহার করে ব্রিজ তৈরী দুদকের অভিযান, ঠিকাদারের ১ বছরের জেল

স্টাফ রিপোর্টার ॥ এবার ব্যবহার অনুপযোগী পুরাতন রড ব্যবহার করে সেতু নির্মাণ করায় দুর্নীতি প্রমাণিত হওয়ায় সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করেছে মোবাইল কোর্ট। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মহাপরিচালক (প্রশাসন) ও এনফোর্সমেন্ট ইউনিটের প্রধান সমন্বয়ক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরীর নির্দেশে দুদক টিমের অভিযানে তা প্রমাণিত হওয়ায় দুদকের অনুরোধে নির্বাহী ম্যাজিস্টেট এ দন্ড প্রদান করেনে। দুদকের নির্দেশে বর্তমানে উক্ত সেতু নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। এছাড়া উক্ত এনফোর্সমেন্ট টিম সিলেটের -কটালপুর বাজার সংলগ্ন সরকারের সামাজিক বনায়নেরবহুমূল্যবান গাছ কেটে ক্ষতিগ্রস্থ করার তথ্য প্রমান পেয়েছে। টিম এই ঘটনার সাথে কারা কারা জড়িত এ সম্পর্কে প্রয়োজনীয় তথ্য সংগ্রহ করছে।

এ প্রসঙ্গে মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরী জনকন্ঠকে বলেন, বাংলাদেশের যে কোন প্রাপ্ত হতে দুর্নীতি ও সরকারী স্বার্থের ক্ষতিসাধনের তথ্য পাওয়া মাত্র দুদক তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা গ্রহণ করছে। এসব ঘটনার বিরুদ্ধে দুদক অনুসন্ধান করবে এবং দুর্নীতি প্রমানিত হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণকরবে।

দুদক সুত্র জানায়, সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে ব্রিজের সংস্কার কাজ চলছে এমন অভিযোগ দুদকে আসলে সংস্থাটির মহাপরিচালক মোহাম্মাদ মুনীর চৌধুরীর নির্দেশে দুদকের সিলেট কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মোস্তাফা বোরহান উদ্দিন ও উপসহকারী পরিচালক মো:আশরাফ উদ্দিন এর সমন্বয়ে একটি এনফোর্সমেন্ট টিম গঠন করে। পরে উক্ত টিম ঘটনাস্থলে পৌছে দেখতে পায়, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলার সিলেট-মৌলভীবাজার সড়কের ফরিদপুর এলাকার ৪০ ফুট বাই ১৭ফুট একটি ব্রিজের সংস্কারে পুরাতন ব্রিজের রড ব্যবহার করা হচ্ছে। পরে দুদকের অনুরোধে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে ঠিকাদারকে ১ বছরের কারাদন্ড দেয়। অীভযানের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন সড়ক ও জনপথের সিলেট জেলার নির্বাহী প্রকৌশলী ও উপবিভাগীয় প্রকৌশলী।