১৯ জুন ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে ধরা পড়ল চকবাজারে অগ্নিকাণ্ড

সিসিটিভি ক্যামেরার ফুটেজে ধরা পড়ল চকবাজারে অগ্নিকাণ্ড

অনলাইন রিপোর্টার ॥ রাজধানীর পুরান ঢাকার চকবাজারের চুড়িহাট্টায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ঝরে গেছে ৬৭টি তাজা প্রাণ। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন প্রায় অর্ধশত মানুষ। ঘটনার পর অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত নিয়ে তৈরি হয় ধোয়াশা। তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, একটি গাড়ির সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়ে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে।

অন্যদিকে সরকারের তদন্ত দল তিনটি বিষয় সামনে নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। বিস্ফোরক পরিদপ্তরের প্রধান পরিদর্শক শামসুল আলম বলেছেন, আমরা ঘটনাস্থল থেকে অনেক তথ্য-উপাত্ত পেয়েছি। ধারণা করা হচ্ছে তিনটি কারণে আগুন লাগতে পারে। কারণগুলো হচ্ছে- ট্রান্সফরমার, গ্যাস সিলিন্ডার অথবা কেমিক্যাল বিস্ফোরণ।

পুরান ঢাকার বাসাবাড়িতে কেমিক্যালের গোডাউন নতুন কিছু নয়। চকবাজারের চুড়িহাট্টায় হাজী ওয়াহেদ ম্যানশন নামের যে ভবনটিতে আগুনের সূত্রপাত বলে দাবি করা হচ্ছে, সেই ভবনটির নিচতলায় বেআইনিভাবে শত শত দাহ্য রাসায়নিকের কনটেইনার এবং প্যাকেট পাওয়া গেছে। এই কেমিক্যালের কারণেই আগুন এত ভয়াবহ রূপ নিয়েছে বলে দাবি করেছে ফায়ার সার্ভিস।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক লে. কর্নেল এস এম জুলফিকার রহমান বলেন, ভবনের ভেতরে গ্যাস লাইটার রিফিলের পদার্থ ছিল। এটা নিজেই একটা দাহ্য পদার্থ। এছাড়া আরো অন্যান্য কেমিক্যাল ছিল। প্রত্যেকটা জিনিসই আগুন দ্রুত ছড়িয়ে দিতে সহায়তা করেছে। পারফিউমের বোতলে রিফিল করা হতো এখানে। সেই বোতলগুলো ব্লাস্ট হয়ে বোমের মতো কাজ করেছে।

এদিকে মিডিয়ার হাতে এসেছে ঘটনার সময়ের একটি সিসিটিভি ফুটেজ। তাতে দেখা যায়, গাড়ির সিলিন্ডার বিস্ফোরণেই আগুনের সুত্রপাত। ঢাকা দক্ষিণের মেয়র সাঈদ খোকনও বলেছেন, অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার সূত্রপাতের সময়ের ভিডিও ফুটেজ পাওয়া গেছে। ফুটেজ বলছে, আগুনের সূত্রপাত সিলিন্ডার। সিলিন্ডারের আগুন লাগার পর মুহূর্তের মধ্যেই ভবনটিতে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

(সৌজন্যে : চ্যানেল টোয়েন্টি ফোর)