১৯ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছে লাঞ্চিত হিরো আলম

শ্বশুরবাড়ির লোকজনের কাছে লাঞ্চিত হিরো আলম

অনলাইন রিপোর্টার ॥ বহুল আলোচিত হিরো আলমকে তার শ্বশুরবাড়ির লোকজন পিটিয়েছে বলে থানায় অভিযোগ জানিয়েছেন তিনি। অভিযোগ তদন্তে গিয়ে জানা যায়, হিরো আলম আগে তার স্ত্রীকে বেদম পিটিয়েছেন। সেই জের ধরেই তাকে পিটিয়েছে শ্বশুরবাড়ির লোকজন।

হিরো আলমের পরকীয়া ও দ্বিতীয় বিয়ে করা নিয়ে প্রথম স্ত্রী সাদিয়া বেগম সঙ্গে বিরোধের জেরে এ ঘটনার অবতারণা। আহত স্ত্রী সাদিয়া বেগমকে উদ্ধার করে বগুড়া জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় হিরো আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন শ্বশুর সাইফুল ইসলাম।

অপরদিকে হিরো আলম আগেই তার শ্বশুরসহ পাঁচজনের নামে থানায় অভিযোগ দিয়েছেন বলে জানা যায়। বুধবার (৬ মার্চ) বিকেলে বগুড়া সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম জানান, ঘটনার পর মঙ্গলবার (৫ মার্চ) দিনগত রাতে হিরো আলম থানায় হাজির হয়ে তাকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ দেন।

পরে অভিযোগটি তদন্ত করতে গেলে জানা যায় উল্টো হিরো আলমের মারধরে তার স্ত্রী আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। হিরো আলম থানায় অভিযোগ করেন, মঙ্গলবার (৫ মার্চ) দিনগত রাত ৮টার দিকে স্ত্রীর সঙ্গে দাম্পত্য কলহের জেরে তার শ্বশুর সাইফুল ইসলাম ও স্ত্রী সাদিয়া বেগমের নেতৃত্বে তার ওপর চড়াও হয়ে মারধর করেছে। পরে তিনি হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে স্ত্রী-শ্বশুরসহ পাঁচজনের নামে থানায় অভিযোগ দেন।

এদিকে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন হিরো আলমের স্ত্রী সাদিয়া বেগম বলেন, দু’মাস পর গত সোমবার রাতে তার স্বামী হিরো আলম শহরের এরুলিয়া গ্রামে তার বাড়িতে আসেন। রাতে বিছানায় তার পাশে শুয়েই একটানা তিন ঘণ্টা মোবাইল ফোনে ঢাকার এক নারীর সঙ্গে কথা বলেন তার স্বামী।

এ ঘটনার প্রতিবাদ করলে সোমবার রাতেই তাকে বেদম মারধর করা হয়। দ্বিতীয় বিয়ে করায় তিনি স্ত্রী-সন্তানের কোনো খবর রাখে না। সংসার খরচ দেন না। প্রতিবাদ করলেই শারীরিকভাবে তাকে নির্যাতন করা হয়। যোগ করেন স্ত্রী সাদিয়া বেগম।

তবে এ ব্যাপারে বক্তব্য জানতে মোবাইল ফোনে হিরো আলমের সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। মিউজিক ভিডিও ও সবশেষ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিয়ে আলোচনায় ছিলেন হিরো আলম।