২১ মার্চ ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রফতানি আয়ে ৮ মাসে প্রবৃদ্ধি ১২.৯৮ শতাংশ

রফতানি আয়ে ৮ মাসে প্রবৃদ্ধি ১২.৯৮ শতাংশ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের পণ্য রফতানিতে বড় প্রবৃদ্ধি হয়েছে। চলতি ২০১৮-১৯ অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে (জুলাই-ফেব্রুয়ারি) ২ হাজার ৭৫৬ কোটি ২৭ লাখ ডলারের পণ্য রফতানি হয়েছে। এই আয় গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ১২ দশমিক ৯৮ শতাংশ বেশি। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৭.৮১ শতাংশ বেশি। রফতানি উন্নয়ন ব্যুরো (ইপিবি) বৃহস্পতিবার পণ্য রফতানি আয়ের যে হালনাগাদ তথ্য প্রকাশ করেছে তাতে দেখা যায়, তৈরি পোশাক রফতানিতে ভালো প্রবৃদ্ধি হওয়ার কারণে সামগ্রিক পণ্য রফতানিতে ইতিবাচক প্রভাব পড়েছে। চলতি অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে ২ হাজার ২৫ কোটি ৬০ লাখ ডলারের পোশাক রফতানি হয়েছে। এই আয় গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ১৪ দশমিক ১৭ শতাংশ এবং লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় ৭ দশমিক ৯৩ শতাংশ বেশি। একক মাস হিসেবে গত ফেব্রুয়ারি মাসে ৩৩৮ কোটি ৩২ লাখ ডলারের পণ্য রফতানি হয়েছে। যা গত অর্থবছরের তুলনায় ১০.১২ শতাংশ বেশি।

ইপিবি’র প্রতিবেদনে দেখা যায়, ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সব ধরনের পণ্য রফতানিতে বৈদেশিক মুদ্রার লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে তিন হাজার ৯০০ কোটি মার্কিন ডলার। চলতি অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে লক্ষ্যমাত্রা ছিল ২ হাজার ৫৫৬ কোটি ৫ লাখ ডলার। এ সময়ে আয় এসেছে ২ হাজার ৭৫৬ কোটি ২৭ লাখ মার্কিন ডলার, লক্ষ্যমাত্রার তুলনায় রফতানি আয়ে প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে ৭ দশমিক ৮১ শতাংশ। ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম ৮ মাসে রফতানি আয় অর্জিত হয়েছিল ২ হাজার ৪৩৯ কোটি ৭০ লাখ ডলার। গত অর্থবছরের তুলনায় চলতি অর্থবছরের গত ৮ মাসে রফতানি আয়ে প্রবৃদ্ধি অর্জিত হয়েছে ১২ দশমিক ৯৮ শতাংশ। প্রতিবেদনে দেখা যায়, একক মাস হিসেবে গত ডিসেম্বরে ৩৩৮ কোটি ৩২ লাখ ডলারের পণ্য রফতানি হয়েছে। এটি গত বছরের ডিসেম্বরের চেয়ে ১০ দশমকি ১২ শতাংশ বেশি। গত বছরের ডিসেম্বরে রফতানি হয়েছিল ৩০৭ কোটি ২১ লাখ ডলারের পণ্য।