২৩ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তেলা মাথায় তেল না দিয়ে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ঋণ বাড়ান ॥ শিল্পমন্ত্রী

তেলা মাথায় তেল না দিয়ে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ঋণ বাড়ান ॥ শিল্পমন্ত্রী

অনলাইন রিপোর্টার ॥ দেশে কার্যরত ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের প্রতি শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন বলেছেন, বড় বড় যারা আছেন, তেলওয়ালার মাথায় আরো তেল না দিয়ে ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের সহজে ও কম সুদে ঋণ বাড়িয়ে দিন। এতে নতুন কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) আয়োজিত সপ্তাহব্যাপী সপ্তম জাতীয় এসএমই পণ্যমেলার-২০১৯ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শনিবার (১৬ মার্চ) তিনি এসব কথা বলেন।

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ বলেন, এসএমই পণ্যের উন্নয়ন বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তান আমলেই চিন্তা করেছেন। পরে যখনই সুযোগ পেয়েছেন, তখনই ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প সংস্থা গড়ে তুলেছেন। আজ সেখানে আমাদের কাজের অনেক সুযোগ আছে।

‘আজ শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গ্লোবাল ফ্যামিলিতে চলে গেছে বাংলাদেশ। আমাদের অনেক কিছুই আজ অন্যদের অনুকরণীয়। স্বাধীনতার পর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরপরই বড় বড় কাজ হয়। বঙ্গবন্ধু যেমন বিসিক (বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন) করেছেন, তেমনই তার কন্যা শেখ হাসিনা করেছেন এসএমই ফাউন্ডেশন। যার মাধ্যমে দেশব্যাপী নতুন উদ্যোক্তা তৈরি হচ্ছে।’

তিনি বলেন, তারা (ক্ষুদ্র উদ্যোক্তারা) বাংলাদেশের অর্থনীতিতে যে অবদান রাখছেন তা ঊদ্ধৃতিযোগ্য। আমরা এককোটি ২১ লাখ কর্মসংস্থান সৃষ্টি করার অঙ্গীকার করেছি। এসএমই ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে স্ব স্ব দক্ষতায় উদ্যোক্তা ও কর্মসংস্থান সৃষ্টি করায় তাদের ধন্যবাদ জানাই।

‘এসএমই পণ্যের মেলা প্রসঙ্গে শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ বলেন, এই মেলা বিশাল একটি উদ্যোগ। এতে প্রায় ৩০০-র মতো স্টল আছে। তাই নারীদের দেশীয় পণ্য তৈরিতে অঞ্চলভিত্তিতে সহযোগিতা করলে, কম সুদে সহজে ঋণ দিতে হবে।

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমরা বড় বড় তেলা মাথায় তেল দিচ্ছি, তা কমিয়ে যদি কিছুটা এদের (ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের) দিই তাহলে সরকারের পরিকল্পনা অনেকটাই বাস্তবায়ন হবে। দেশে কর্মসংস্থান বাড়বে।

‘আপনারা এগিয়ে আসুন। পরিকল্পনা দিন। সরকারের পক্ষ থেকে সহযোগিতার জন্য প্রস্তুত আছি,’ ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কর্তৃপক্ষের উদ্দেশ্যে বলেন মন্ত্রী।

এ সময় শিল্পমন্ত্রীর কাছে অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার ক্ষুদ্র উদ্যোক্তাদের ৫ শতাংশ সুদে ঋণের ব্যবস্থা করার অনুরোধ জানান। একই সঙ্গে তিনি দেশের সব বিমানবন্দর এবং দূতাবাসগুলোতে এসএমই পণ্য প্রদর্শন ও বিক্রির ব্যবস্থা রাখার ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশও করেন।

এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন কেএম হাবিব উল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে শিল্প সচিব আবদুল হালিমসহ সারাদেশ থেকে আসা ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে বর্ষসেরা ছয় ক্ষুদ্র উদ্যোক্তার হাতে পুরস্কার তুলে দেন প্রধান অতিথি নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন।

মেলায় ২৮০টি এসএমই উদ্যোক্তা প্রতিষ্ঠান তাদের উৎপাদিত পণ্য নিয়ে অংশ নিয়েছে। এর মধ্যে ১৮৮জন নারী ও ৯২জন পুরুষ উদ্যোক্তা।

মেলায় দেশে উৎপাদিত পাটজাত পণ্য, খাদ্য ও কৃষি প্রক্রিয়াজাত পণ্য, চামড়াজাত সামগ্রী, ইলেকট্রিক্যাল ও ইলেকট্রনিক্স সামগ্রী, লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং পণ্য, আইটি পণ্য, প্লাস্টিক ও অন্যান্য সিনথেটিক, হস্তশিল্প, ডিজাইন ও ফ্যাশনওয়্যারসহ অন্যান্য ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের স্বদেশী পণ্য প্রদর্শিত ও বিক্রি হচ্ছে।

আগামী ২২ মার্চ পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে মেলা।