১৮ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ছেঁউড়িয়ায় তিনদিনের লালন স্মরণোৎসব শুরু বুধবার

ছেঁউড়িয়ায় তিনদিনের লালন স্মরণোৎসব শুরু বুধবার

অনলাইন রিপোর্টার ॥ কুষ্টিয়ার ছেঁউড়িয়ার লালন আঁখড়াবাড়িতে আগামী ২০ মার্চ বুধবার থেকে শুরু হতে যাচ্ছে তিন দিনব্যাপি লালন স্মরণোৎসব। সেই সাথে বসবে গ্রামীন মেলাও।

দোল পুর্ণিমার রাতে আনুষ্ঠানিভাবে বাউল সম্রাট ফকির লালন শাহের মাজারে ৩দিন ব্যাপী স্মরণোৎসবের উদ্বোধন করা হবে। এ লালন স্মরণোৎসবকে কেন্দ্র করে দেশি ও বিদেশী লাখো বাউল ভক্তদের আগমন হবে লালন আঁখড়াবাড়িতে।

এবারের আয়োজনে মরমী সাধক বাউল ফকির লালন সাঁইজির অমর বানী “মনের গরল যাবে যখন, সুধাময় সব দেখবি তখন” প্রতিপাদ্যে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় ও কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় লালন একাডেমীর আয়াজনে এ লালন স্মরণোৎসব অনুষ্ঠিত হবে।

বুধবার ২০ মার্চ সন্ধ্যায় আনুষ্ঠানিক ভাবে তিনদিন ব্যাপি স্মরণোৎসব ও গ্রামীন মেলা চলবে ২২ মার্চ শুক্রবার পর্যন্ত। প্রথম দিনে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে স্মরণোৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানী ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ডঃ তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, বীর বিক্রম।

আলোচনা সভা শেষে শুরু হবে বহুল প্রতিক্ষিত লালন সঙ্গীত। যা গাইবেন লালন একাডেমীর শিল্পীরা ছাড়াও দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত খ্যাতনামা বাউল শিল্পী ও ভক্তবৃন্দরা।

বাউল লালন শাহের জীবদ্দশায় চৈত্র মাসের প্রথম সপ্তাহে পুর্ণিমার রাতে দোলপুর্ণিমার উৎসব পালন করা হতো। সেই থেকে লালন ভক্তরা প্রতি বছরই তাদের কাংখিত এই উৎসব পালন করে থাকে।

কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসক আসলাম হোসেন বলেন, লালন স্মরণোৎসব ও গ্রামীন মেলাকে কেন্দ্র করে মাজার প্রাঙ্গন ও তার আশেপাশের এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পুরো মাজার এলাকা সিসি ক্যামেরার আওতায় থাকবে। জেলা পুলিশ, র্যাব, গোয়েন্দা পুলিশ এর পাশাপাশি সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন থাকবে। সেই সাথে আমাদের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটগণ সেখানে দায়িত্বে থাকবে।