২২ এপ্রিল ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাদারীপুরে গ্রামীণ সড়ক নদীগর্ভে ॥ যোগাযোগ বিঘ্নিত

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর, ১৮ মার্চ ॥ মাদারীপুরে এক রাতেই একটি গ্রামীণ সড়কের মাঝামাঝি অংশ নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ফলে হঠাৎ করে যোগাযোগ বিঘ্নিত হওয়ায় এলাকাবাসী বিপাকে পড়েছে। রাজৈর উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের গোয়ালবাথান নামকস্থানে হরিদাসদী-মহেন্দ্রদী ইউনিয়নের সংযোগ সড়কের মাঝামাঝি অংশ রবিবার রাতে কুমার নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। ফলে ওই এলাকার মানুষকে মাঠের ভেতর দিয়ে অনেকদূর ঘুরে চলাচল করতে হচ্ছে। রাজৈরের টেকেরহাট বন্দর থেকে হরিদাসদী-মহেন্দ্রদী ইউনিয়নের একমাত্র সংযোগ সড়কটি হঠাৎ নদীগর্ভে বিলীন হওয়ায় যোগাযোগ চরমভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে। সাধারণ পথচারী, শত শত শিক্ষার্থী, শিক্ষক, ব্যবসায়ী অনেক কষ্টে হেঁটে কোন রকমে গন্তব্যে যাচ্ছে। যেখানে রাস্তাটি ভেঙ্গেছে সেখানে মেরামতের কোন উপায় নেই। ফলে এখানকার মানুষের জন্য এটা স্থায়ী সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, নদীরপাড় দিয়ে রাস্তা হওয়ায় এমনিতেই অনেক ঝুঁকি নিয়ে আমাদের যাওয়া-আসা করতে হয়। তারপর মাঝে মাঝেই বালু দস্যুদের অবৈধভাবে রাস্তার পাড় ঘেঁষে কুমার নদ থেকে বালু উত্তোলনের কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া আশপাশে নদী শাসনের ব্যবস্থা থাকলেও এখানে না থাকায় রাস্তাটি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

হরিদাসদী-মহেন্দ্রদী বিদ্যালয়ের শিক্ষক রমেন্দ্রনাথ মজুমদার জানান, রাস্তাটি ভেঙ্গে যাওয়ায় অনেক কষ্ট করে আমাদের স্কুলে যেতে হচ্ছে। আমাদের ছাত্রছাত্রীরাও অনেক কষ্টে স্কুলে আসছে। রাস্তাটি দ্রুত মেরামত করা না হলে এলাকার ছাত্রছাত্রীরা স্কুলে আসা বন্ধ করে দেবে। ফলে তাদের লেখাপড়ার ক্ষতি হবে।

হরিদাসদী-মহেন্দ্রদী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রেজাউল করিম মাতুব্বর বলেন, মূল রাস্তাটি ২০১৮ সালের প্রথমদিকে ভেঙ্গে কুমার নদে চলে যায়। অনেক চেষ্টা করে পাশ দিয়ে মাটি কেটে কোন রকমে মানুষের যাতায়াতের ব্যবস্থা করেছিলাম। কিন্তু সেটাও নদীতে চলে গেছে। এর একটা স্থায়ী ব্যবস্থা করা দরকার।