২০ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সূচকের উত্থানেও শেয়ারবাজারে আড়াই মাসে সর্বনিম্ন লেনদেন

সূচকের উত্থানেও শেয়ারবাজারে আড়াই মাসে সর্বনিম্ন লেনদেন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সোমবার বড় পতন হলেও মঙ্গলবার উত্থানে শেষ হয়েছে শেয়ারবাজারের লেনদেন। এদিন উভয় শেয়ারবাজারের প্রধান প্রধান সূচক বেড়েছে। তবে টাকার পরিমাণে লেনদেন কমেছে উভয় শেয়ারবাজারে। উভয় শেয়ারবাজারেই দিনটিতে বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর দর সংশোধন হয়েছে। এর বিপরীতে অন্যান্য কোম্পানিগুলোর দর বেড়েছে বেশি।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) টাকার পরিমাণে লেনদেন আড়াই মাসে এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন তিন মাসে সবচেয়ে কম হয়েছে।

ডিএসইতে ৪৩৭ কোটি ৮০ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। যা ২ মাস ২৩ দিন বা ৫৪ কার্যদিবসের মধ্যে সবচেয়ে কম। এর আগে ২০১৮ সালের ২৬ ডিসেম্বর ডিএসইতে আজকের থেকে কম লেনদেন হয়েছিল। ওই দিন লেনদেন হয়েছিল ৩৮৮ কোটি টাকার।

সিএসইতেও লেনদেন ৩ মাস ২ দিন বা ৬০ কার্যদিবসের মধ্যে সবচেয়ে কম হয়েছে। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১২ কোটি ৪৫ লাখ টাকার। এর আগে ২০১৮ সালের ১৭ ডিসেম্বর আজকের থেকে কম অর্থাৎ ১১ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছিল।

ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ২৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫ হাজার ৬৩১ পয়েন্টে। অপর দুই সূচকের মধ্যে শরিয়াহ সূচক ১০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১২৯২ পয়েন্টে। তবে ডিএসই-৩০ সূচক ৩ পয়েন্টে কমে দাঁড়িয়েছে ২০১৪ পয়েন্টে।

এদিন ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নিয়েছে ৩৪৬টি প্রতিষ্ঠান। এদের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ২৩৩টির বা ৬৭ শতাংশের, শেয়ার দর কমেছে ৮১টির বা ২৪ শতাংশের এবং শেয়ার দর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩২টির বা ৯ শতাংশ প্রতিষ্ঠানের।

ডিএসইতে টাকার পরিমাণে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে বৃটিশ আমেরিকান ট্যোবাকোর। কোম্পানিটির ২৯ কোটি ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। ২৫ কোটি ৯ লাখ টাকার লেনদেনে দ্বিতীয় স্থানে ইউনাইটেড পাওয়ার এবং ২১ কোটি ৪৮ লাখ টাকা লেনদেনে তৃতীয় স্থানে উঠে আসে ব্র্যাক ব্যাংক। সার্বিক লেনদেনর শীর্ষে উঠে আসা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে - ডাচ-বাংলা ব্যাংক, স্কয়ার ফার্মা, মুন্নু সিরামিক, সিঙ্গার বিডি, ম্যারিকো, প্রিমিয়ার ব্যাংক এবং রেকিট বেনকিজার।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই এদিন ৬৩ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ হাজার ২০৯ পয়েন্টে। এদিন সিএসইতে হাত বদল হওয়া ২৩৪টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ১৩৬টির, কমেছে ৬৪টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৪টির দর।