২৪ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তৃণমূলের মুনমুনকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য

তৃণমূলের মুনমুনকে নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য

অনলাইন ডেস্ক ॥ সামনেই ভারতের লোকসভা নির্বাচন। এ লক্ষে গত মঙ্গলবার প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করে তৃণমূল কংগ্রেস। এরপর থেকেই বাজে ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের শিকার হচ্ছেন দলটির তারকা প্রার্থীরা। সেই ধারাবাহিকতায় এবার বিরোধী দল বিজেপির অশ্লীল মন্তব্যের শিকার হলেন অভিনেত্রী মুনমুন সেন।

কিংবদন্তি অভিনেত্রী সুচিত্রা সেনের মেয়ে মুনমুন গতবার বাঁকুড়া থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছিলেন। দলটি থেকে সেখানে এবার প্রার্থী করা হয়েছে রাজ্যের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে। মুনমুনকে প্রার্থী করা হয়েছে আসানসোলে। এই আসনে বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও গায়ক বাবুল সুপ্রিয়র সঙ্গে টক্কর দিতে হবে তাকে।

ভারতীয় গণমাধ্যমের খবর, মঙ্গলবার আসানসোলে নির্বাচনী প্রচারে গিয়ে তৃণমূল নেতাদের পাশে রেখে সংবাদ সম্মেলন করছিলেন মুনমুন সেন। হঠাৎই তার শাড়ির আঁচল সরে যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই দৃশ্যের ভিডিও ছড়িয়ে দিয়েছে কে বা কারা। এরপরই বিষয়টি নিয়ে নতুন জলঘোলা শুরু হয়েছে।

ওই দৃশ্যকে পুঁজি করে মুনমুনকে ব্যক্তিগত ভাবে আক্রমণ করেছে বর্তমান ক্ষমতাসীন দল বিজেপির একাংশ। অশ্লীল মন্তব্য করেছে তারা অভিনেত্রীর ভোটে প্রার্থী হওয়া নিয়ে। বলেছে, যিনি নিজের আঁচল সামলাতে পারেন না, তিনি আসানসোলের মতো একটা বড় লোকসভা কী করে সামলাবেন?

দলের প্রার্থীকে নিয়ে এমন মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এর আগে গত বুধবার মুনমুন সেনকে ‘সেনসেশনাল’ প্রার্থী হিসেবে কটাক্ষ করেন আসানসোলের বর্তমান সাংসদ বাবুল সুপ্রিয়। তার এই কটাক্ষের জবাবে একহাত নেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তিনি বিজেপির মন্ত্রী বাবুলকে ‘আনকালচার্ড’ বলে উল্লেখ করেন।

শুধু মুনমুন নয়, গত কয়েকদিন ধরে নানা সমালোচনা, বাজে মন্তব্য ও কটাক্ষের শিকার হতে হচ্ছে লোকসভা নির্বাচনে প্রথমবার প্রার্থী হওয়া নুসরাত জাহান ও মিমি চক্রবর্তীকেও। দুই অভিনেত্রী অবশ্য ইতিমধ্যে সেসবের উপযুক্ত জবাবও দিয়ে দিয়েছেন। তবে মুখ বন্ধ রেখেছেন তৃণমূলের জ্যেষ্ঠ রাজনীতিক মুনমুন সেন। মনে হচ্ছে ভোটের মাধ্যমেই তিনি সকল কটাক্ষ ও অশ্লীল মন্তব্যের জবাব দিতে চান।

নির্বাচিত সংবাদ