২৫ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নানা কর্মসূচীতে ঢাকা ও ভৈরবে জিল্লুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী পালিত

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ নানা আয়োজন ও কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে রাজধানী ঢাকা ও কিশোরগঞ্জে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী পালিত হয়েছে। প্রয়াত রাষ্ট্রপতির কবরে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছে আওয়ামী লীগসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন। বুধবার সকালে বনানী কবরস্থানে তার কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

বাদ আছর মরহুম জিল্লুর রহমানের বাসভবনে মাহফিলে মরহুম রাষ্ট্রপতির আত্মীয়-স্বজন, সহকর্মী ও গুণগ্রাহীরা অংশ নেন। সকালে শ্রদ্ধা নিবেদনের সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী একেএম এনামুল হক শামীম, দফতর সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক হাবিবুর রহমান সিরাজ, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, উপ-দফতর সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কেন্দ্রীয় সদস্য এ্যাডভোকেট রিয়াজুল কবির কাওছার, আনোয়ার হোসেন, প্রয়াত জিল্লুর রহমানের ছেলে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন এমপি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। আওয়ামী লীগের পর দলের অন্যান্য অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করা হয়।

এদিকে, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে প্রয়াত জিল্লুর রহমানের ৬ষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার সংগঠনের গুলশান কার্যালয়ে স্টিয়ারিং কমিটির সভাপতি খ্যাতিমান অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরীর সভাপতিত্বে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের উপদেষ্টা সৈয়দ হাসান ইমাম, কার্যকরী সভাপতি অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান, সহ-সভাপতি চিত্রনায়িকা রোজিনা, রোকেয়া প্রাচী, সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা, জোটের কেন্দ্রীয় নেতা ও স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের কণ্ঠশিল্পী রফিকুল আলম, কণ্ঠশিল্পী দিনাত জাহান মুন্নী, এস ডি রুবেল, জেনিফা ফেরদৌস, অভিনেত্রী তারিন, শাহনুর, মোত্তাছিম বিল্লাহ, বৃষ্টি রানী সরকার, মাধবী সরকার, হাবিবুল্লাহ রিপন ও দিলীপ সরকার প্রমুখ। কবরী বলেন, প্রয়াত জিল্লুর রহমান ছিলেন আওয়ামী লীগের বটবৃক্ষ স্বরূপ। তিনি আওয়ামী লীগের দুঃসময়ে শক্ত হাতে হাল ধরে দলকে ঐক্যবদ্ধ রেখেছিলেন। তিনি ছিলেন আপাদমস্তক রাজনীতিক, গণতান্ত্রিক ও যোগ্য সংগঠক। তার শূন্যতা পূরণ হতে জাতিকে অনেক দিন অপেক্ষা করতে হবে। একটি নির্দিষ্ট দলের রাজনীতি করলেও সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা অর্জন করেছিলেন প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমান।

নিজস্ব সংবাদদাতা কিশোরগঞ্জ থেকে জানান, ভৈরবে পালিত হয়েছে মরহুম জিল্লুর রহমানের ষষ্ঠ মৃত্যুবার্ষিকী। দিবসটি উপলক্ষে সকালে ভৈরব উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের আয়োজনে কালোব্যাজ ধারণ, মরহুমের প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন, মিলাদ ও দোয়া মাহফিল, তবারক বিতরণ ও স্মরণসভা হয়। মৃত্যুবার্ষিকীকে কেন্দ্র করে সকাল সাতটায় আওয়ামী লীগের ডাউলপট্টি দলীয় কার্যালয়ে কোরানখানি হয়। পরে বেলা নয়টার দিকে মরহুমের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান নেতাকর্মীরা। দশটায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যাপক শামসুজ্জামান বাচ্চুর সভাপতিতে স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিল হয়েছে।

পাঁচ মেয়াদে এক যুগেরও বেশি সময় আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালনকারী জিল্লুর রহমান ২০০৯ সালের ১২ ফেব্রুয়ারি দেশের ১৯তম রাষ্ট্রপতির দায়িত্ব গ্রহণ করেন। ১৩ সালের ২০ মার্চ বার্ধক্যজনিত কারণে সিঙ্গাপুরের একটি হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন।

নির্বাচিত সংবাদ