২০ এপ্রিল ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইয়েমেনে ফের বিমান হামলা সৌদি জোটের

ইয়েমেনে ফের বিমান হামলা সৌদি জোটের

অনলাইন ডেস্ক ॥ ইয়েমেনের রাজধানী সানায় নতুন করে বিমান হামলা চালিয়েছে সৌদি নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট। হামলার লক্ষ্যবস্তু থেকে বাদ পড়েনি আল দাইলামি বিমান ঘাঁটিও। আল আরাবিয়া টেলিভিশনের বরাত দিয়ে শনিবার এক প্রতিবেদনে এ খবর জানিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম রয়টার্স। তবে এতে হামলার ক্ষয়ক্ষতি বা হতাহতের কোনও সংখ্যা উল্লেখ করা হয়নি।

এর আগে ইয়েমেনের প্রধান বন্দর হুদাইদাহ জাতিসংঘের মধ্যস্থতায় একটি শান্তি চুক্তির যে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছিল তাতে প্রতিবন্ধকতা তৈরির জন্য ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হুথিদের দায়ী করে যুক্তরাষ্ট্র।

ইয়েমেনে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেছেন, হুথিদের কাছে থাকা অস্ত্র এ অঞ্চলের অন্য দেশগুলোর জন্যও হুমকিস্বরূপ।

২০১৫ সালে ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট মনসুর হাদিকে উচ্ছেদ করে রাজধানী সানা দখলে নেয় ইরান সমর্থিত শিয়াপন্থী হুথি বিদ্রোহীরা। সৌদি আরবের রাজধানী রিয়াদে পালিয়ে যান হাদি। ২০১৫ সালের মার্চে হুথি বিদ্রোহীদের বিরুদ্ধে মিত্রদের নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তায় সামরিক অভিযান শুরু করে সৌদি আরব। সৌদি জোটের অভিযান শুরুর পর এ পর্যন্ত নারী-শিশুসহ ১০ হাজারের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে। গত ডিসেম্বরে জাতিসংঘের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনে মানবিক সহায়তার জন্য ৪০০ কোটি মার্কিন ডলার প্রয়োজন।

এ মাসে প্রকাশিত জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গৃহযুদ্ধ কবলিত ইয়েমেনে গত বছর প্রতি সপ্তাহে প্রায় ১০০ মানুষ হতাহত হয়েছে। এর মধ্যে এক পঞ্চমাংশই শিশু। জাতিসংঘ শরণার্থী বিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর জানিয়েছে, ২০১৮ সালে ইয়েমেনে চার হাজার ৮০০ বেসামরিক মাষ নিহত বা আহত হয়েছে। এই সময়ে ৪১০ শিশু নিহত ও ৫৪২ শিশু আহত হয়েছে। হতাহতের ঘটনার অর্ধেকই ঘটেছে পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর হুদাইদাহতে। ইয়েমেনের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই বন্দরনগরীতে গত বছর হুথি বিদ্রোহী ও সৌদি জোট সমর্থিত ইয়েমেন সরকারের মধ্যে তুমুল লড়াই হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ