২৩ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরিশালে তিন শর্তে ইজতেমার অনুমতি পেলেন সাদপন্থীরা

বরিশালে তিন শর্তে ইজতেমার অনুমতি পেলেন সাদপন্থীরা

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ তাবলিগ জামাতের সাদপন্থীদের তিন দিনের ইজতেমা নিয়ে বিরোধের অবসান হয়েছে। তিন শর্তে তাদের ইজতেমা করার অনুমতি দিয়েছে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ-বিএমপি। আগামী ২৮, ২৯ ও ৩০ মার্চ নগরীর সিঅ্যান্ডবি সড়কে থানা কাউন্সিলের পেছনের মাঠে এ ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে।

শর্তগুলো হলো-মাওলানা সাদের মতবাদ প্রচার কিংবা উস্কানিমূলক বক্তব্য দেওয়া যাবে না। এইচএসসি পরীক্ষা আসন্ন হওয়ায় মাইকের শব্দ নিয়ন্ত্রিত রাখতে হবে এবং আয়োজকদের নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক দিয়ে শৃঙ্খলা রক্ষা করতে হবে। সূত্রমতে, সস্প্রতি তাবলিগ জামাতের শীর্ষ নেতা ভারতের মাওলানা সাদের অনুসারীরা বরিশালে ইজতেমা করার প্রস্তুতি শুরু করেন। তবে সর্বস্তরের ওলামায়ে কেরামের ব্যানারে বুধবার প্রতিবাদ সভা করে ইজতেমা প্রতিহত করার ঘোষণা দেন সাদ বিরোধীরা। মহানগর ইমাম সমিতি ও নগরীর কওমি মাদ্রাসাগুলোর ছাত্র-শিক্ষকরা সাদবিরোধী ওলামাদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এনিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছিলো। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে বিষয়টির সুরাহা হয়।

শনিবার সকালে সাদবিরোধী নগরীর বেলতলা মাহমুদিয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নেতা মাওলানা ওবাইদুর রহমান মাহবুব বলেন, বিএমপির উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) মোয়াজ্জেম হোসেন ভূঁইয়ার উপস্থিতিতে তার কার্যালয়ে দু’পক্ষের সভায় দীর্ঘ আলোচনার পর শর্তসাপেক্ষে ইজতেমার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। দু’পক্ষই এসব শর্ত মেনে নিয়েছেন। সাদ অনুসারী ইজতেমার আয়োজকদের মুরব্বি মোঃ শাহজাহান জানান, সভায় ইজতেমার বিরোধীরা মাওলানা সাদের মতবাদ প্রচার নিয়ে আপত্তি তোলেন। পরে পুলিশ প্রশাসন থেকে সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়, সাদের ধর্মীয় মতবাদ ইজতেমায় আলোচনা হবেনা।

কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মোঃ নুরুল ইসলাম বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সেখানে শর্তসাপেক্ষে ইজতেমা করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। সূত্রমতে, ঢাকার ইজতেমার মুরব্বিরা বিভক্ত হওয়ায় সারাদেশের মতো বরিশালেও তার প্রভাব পরেছে। এখানে সাদপন্থিরা নগরীর চৌমাথা মার্কাজ মসজিদ ও সাদবিরোধীরা বেলতলা মাহমুদিয়া মাদ্রাসা থেকে কার্যক্রম পরিচালনা করছেন।

নির্বাচিত সংবাদ