২২ এপ্রিল ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ধারাবাহিক নাটক ‘ক্যাটস আই’

ধারাবাহিক নাটক ‘ক্যাটস আই’

স্টাফ রিপোর্টার ॥ স্যাটেলাইট চ্যানেল মাইটিভির জন্য নির্মিত হচ্ছে ধারাবাহিক নাটক ‘ক্যাটস আই’। অমিত চৌধুরী রচিত এই নাটকটি যৌথভাবে পরিচালনা করছেন শিহাব ও স্বাধীন। ‘ক্যাটস আই’ নাটকে অভিনয় করছেন রাজীব রেজা, কবির আহমেদ, জয়রাজ, এস এম কামরুল বাহার, নুর এ আলম নয়ন, প্রিয়ন্তি, তিনু করিম, কানিজ ফাতেমা কাসেম, সানজিদা তন্ময়, সুবর্ণ সাইফুল, রোজ, রইস খান, মহসিন রনিসহ আরও অনেকে। নাটকের প্রথম লটের শূটিং ও সম্পাদনার কাজ শেষ হয়েছে। এখন চলছে আবহসঙ্গীতের কাজ। আগামী এপ্রিল মাসে নাটকটি প্রচার হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

নাটকটি প্রসঙ্গে যৌথ নির্দেশক শিহাব ও স্বাধীন জানান, খুবই সময় উপযোগী এ নাটকে বর্তমান সমাজের চালচিত্রকে আমরা সুন্দরভাবে তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। ডিজিটাল বাংলাদেশের গ্রামীণ পটভূমিকে দেখানোর চেষ্টা করেছি। প্রযুক্তির ব্যবহার-অপব্যবহার, সুফল-কুফল, সামজিক ব্যবস্থাপনা, যুব উন্নয়ন, নারীর ক্ষমতায়নসহ তথ্য প্রযুক্তির বিভিন্ন দিক তুলে ধরে গল্পটি এগোচ্ছে। চেষ্টা করছি মৌলিক হাস্য রসের মধ্য দিয়ে কিছু মেসেজ দিতে। চেষ্টা করেছি লেখকের বক্তব্যকে স্পষ্টভাবে তুলে ধরার। শিল্পী কলাকুশলীরাও গল্পের চরিত্রগুলো ফুটিয়ে তুলতে খুব আন্তরিক ও মনোযোগী ছিলেন। বাদ বাকিটা দর্শকদেব হাতে। এদিকে এই নাটকের মাধ্যমে মঞ্চ থেকে এবার টিভি নাটকের অভিনয়ে নিয়মিত হচ্ছেন এ সময়ের তরুণ অভিনেতা ও নির্দেশক রাজীব রেজা। অত্যন্ত পরিশ্রমী কর্মী রাজীব রেজা মঞ্চে সরব উপস্থিতি ও ব্যতিক্রমী কিছু কাজের মাধ্যমে পরিচিতি পেয়েছেন। এবার তিনি টিভির পর্দায় নিয়মিত হতে যাচ্ছেন। ‘ক্যাটস আই’ নাটকে রাজীব রেজা গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করছেন।

রাজীব রেজা বলেন, মঞ্চ আমার প্রাণের জায়গা। তবে এও ঠিক টিভি মিডিয়াও স্বপ্নের জায়গা। তাই মঞ্চ থেকে প্রস্তুতি নিয়ে এসেছি। প্রতিনিয়ত শিখছি, নিজেকে সমৃদ্ধ করছি। মঞ্চ এক ধরনের চ্যালেঞ্জ, টিভি অন্য ধরনের চ্যালেঞ্জ। মঞ্চ একটা গ-ি, একটা নির্দিষ্ট ছক। এক শ্রেণীর দর্শক, নির্দিষ্ট সময়, সরাসরি আদান-প্রদান। আর টিভিতো এর বাইরেও অনেক বড় একটা জায়গা। আর এই বিশাল জায়গায় এখন থেকে মঞ্চের পাশাপাশি নিয়মিত কাজ করার চেষ্টা করব।

‘ক্যাটস আই’ নাটকে তার অভিনীত চরিত্র প্রসঙ্গে রাজীব রেজা বলেন, চরিত্রটি গতানুগতিকতার মধ্যেও একটু ব্যতিক্রম। গ্রামের একটি শিক্ষিত সহজ সরল ছেলে, যার মধ্যে প্রগতিশীল চিন্তা রয়েছে। আবার কিছু কুসংস্কারও তাকে আঁকড়ে রাখে।

কখনও ফানি কখনও সিরিয়াস, বন্ধু-বান্ধব ও গ্রামের মানুষকে নিয়ে আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন যার ভাবনা। কতটুকু কি করতে পেরেছি তা দর্শকরা দেখলেই বুঝতে পারবেন। তবে প্রতিনিয়ত ভাল করার চেষ্টা অব্যাহত থাকবে। বিচার-বিবেচনা সবসময়ই দর্শকদের হাতে, তারা তুষ্ট হলেই আমার এ পরিশ্রমের স্বার্থকতা।