২৩ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সম্মিলিত সামরিক বাহিনীর সমরাস্ত্র প্রদর্শনী উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

  সম্মিলিত সামরিক বাহিনীর  সমরাস্ত্র প্রদর্শনী  উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রীর

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস ২০১৯ উপলক্ষে রবিবার বিকেলে বাংলাদেশ সম্মিলিত সামরিক বাহিনীর সমরাস্ত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেছেন। রাজধানীর তেজগাঁও পুরাতন বিমান বন্দরে জাতীয় প্যারেড স্কোয়ারে প্রদর্শনীর ফিতা কেটে প্রধানমন্ত্রী সপ্তাহব্যাপী সেনা, নৌ ও বিমান সমরাস্ত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। খবর বাসসর।

এসময় মিগ-২৯সহ বাংলাদেশ বিমান বাহিনীর ৬টি জঙ্গীবিমান প্যারেড স্কোয়ারের ওপর দিয়ে দর্শনীয় উড্ডয়ন প্রদর্শন করে এবং ছত্রীসেনাগণ প্যারেড স্কোয়ারে সফলভাবে অবতরণ করে।

প্রধানমন্ত্রী প্রদর্শনীস্থলে এসে পৌঁছলে সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ, নৌবাহিনী প্রধান এডমিরাল আবু মোজাফফর মহিউদ্দিন মোহাম্মদ আওরঙ্গজেব চৌধুরী, বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত এবং সশস্ত্র বাহিনী বিভাগের প্রিন্সিপ্যাল স্টাফ অফিসার লেফটেন্যান্ট জেনারেল মোঃ মাহফুজুর রহমান তাকে অভ্যর্থনা জানান।

প্রধানমন্ত্রী সেনা, নৌ ও বিমানবাহিনীর বিভিন্ন স্টল ও প্যাভেলিয়নসমূহ ঘুরে দেখেন এবং সমরাস্ত্রসমূহ পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে প্রধানমন্ত্রীকে স্টলসমূহ ও সমরাস্ত্রের পরিচিতিমূলক ব্রিফিং প্রদান করা হয়। এছাড়াও প্রধানমন্ত্রী মহান মুক্তিযুদ্ধে সশস্ত্র বাহিনীর অবদান ও বীরত্বগাথা, বর্তমান সরকারের বিগত ১০ বছরে সশস্ত্র বাহিনীর উন্নয়ন ও আধুনিকায়ন, দেশ ও জাতি গঠনে সশস্ত্র বাহিনীর ভূমিকা এবং জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে সশস্ত্র বাহিনীর অবদান সংশ্লিষ্ট বিষয়ের ওপর নির্মিত ৪টি পৃথক স্টল পরিদর্শন করেন। প্রধানমন্ত্রী এ উপলক্ষে অনুষ্ঠিত একটি মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও উপভোগ করেন। এ সময় মন্ত্রিপরিষদের সদস্যবৃন্দ, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টাগণ, রাজধানীর সংসদ সদস্যবৃন্দ, সংশ্লিষ্ট সচিবগণ, বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন দেশের কূটনৈতিক মিশনের প্রধানগণ এবং পদস্থ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তাবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদ্যাপন উপলক্ষে তেজগাঁওয়ের পুরাতন বিমানবন্দর এলাকায় উদ্বোধন হওয়া এই সমরাস্ত্র প্রদর্শনী আগামী ২৬ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বিকেল সাড়ে ৫টা পর্যন্ত সর্বসাধারণের জন্য খোলা থাকবে। অপরদিকে ৩০ মার্চ ২০১৯ তারিখ দুপুর ১২টা থেকে বিকেল ৫টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত সর্বসাধারণের সঙ্গে ঢাকা শহরের স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রী এবং ৩১ মার্চ ২০১৯ তারিখ দুপুর ১২টা থেকে ৫টা ৩০ মিনিট পর্যন্ত সশস্ত্র বাহিনী সদস্যদের পরিবারবর্গ ও বাহিনীত্রয় কর্তৃক পরিচালিত স্কুল-কলেজের ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য সমরাস্ত্র প্রদর্শনী উন্মুক্ত থাকবে।

জবির নতুন ক্যাম্পাসের নক্সা দেখলেন প্রধানমন্ত্রী ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রবিবার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জেএনইউ) নতুন ক্যাম্পাস ও বিদ্যুত ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউটের নক্সা দেখেন। নতুন ক্যাম্পাস ও বিদ্যুত ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউট কেরানীগঞ্জে নির্মিত হবে। তবে, রবিবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে একটি পাওয়ারপয়েন্ট উপস্থাপন করা হয়। খবর বাসসর।

পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের বলেন, প্রধানমন্ত্রী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নতুন ক্যাম্পাস ও বিদ্যুত ব্যবস্থাপনা ইনস্টিটিউটের নক্সা দেখে সন্তোষ প্রকাশ করেন।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনে পর্যাপ্ত খেলার মাঠ এবং জলাশয়ের ব্যবস্থা রাখার নির্দেশ দিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী সেখানে বৃষ্টির পানি ধরে রাখার ব্যবস্থা করার এবং পরিবেশ সংরক্ষণের বিষয়ে যথাযথ মনোযোগ দেয়ারও আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী, বিদ্যুত, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মোঃ নজিবুর রহমান, বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মিজানুর রহমান, জ্বালানি বিভাগের সচিব ড. আহমাদ কায়কাউস এবং জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের সচিব আবু হেনা মোঃ রহমাতুল মুনিম এ সময় উপস্থিত ছিলেন।