২৩ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

৩০ মিনিটে লন্ডন থেকে নিউইয়র্ক

৩০ মিনিটে লন্ডন থেকে নিউইয়র্ক

সামনের দশকের শেষ দিকে লন্ডন থেকে নিউইয়র্কে ৩০ মিনিটে যাত্রী পরিবহনের সম্ভাবনা রয়েছে এ্যারোস্পেস প্রতিষ্ঠানগুলোর। বিনিয়োগকারীদের দেয়া এক নথিতে সুইস ব্যাংক ইউবিএস জানায়, মহাকাশ হয়ে দ্রুতগতিতে যাত্রী সেবার বাজার শীঘ্রই বছরে ১৯৭০ কোটি মার্কিন ডলারে পৌঁছাবে। এটি দূরপাল্লার ফ্লাইটের বাজার নিয়ে নিতে পারে। যাত্রীরা এক শহর থেকে রকেটে চড়বেন এবং মহাকাশে পৌঁছাবে, ঘণ্টায় ২৭ হাজার কিলোমিটার বেগে চলে এটি আরেক শহরে পৌঁছাবে।

ইউবিএসের দাবি ইলন মাস্কের স্পেসএক্স স্টারশিপ রকেটে লন্ডন থেকে নিউইয়র্ক যেতে সময় লাগবে মাত্র ২৯ মিনিট, আর সিডনি যেতে সময় লাগবে ৫১ মিনিট। ‘অনেকেই হয়তো মহাকাশ হয়ে দূরপাল্লার যাত্রীসেবার বিষয়টি বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনীর মতো মনে করবেন। আমরা মনে করি এটির একটি বড় বাজার রয়েছে,’ বলেন ইউবিএস বিশ্লেষক জ্যারড ক্যাসল এবং মাইলেস ওয়ালটন। এর আগে মাস্ক বলেছিলেন, একদিন মানুষ এক ঘণ্টার কম সময়ে পৃথিবীর যে কোন স্থানে যাতায়াত করতে পারবে সাধারণ ফ্লাইট টিকেটের খরচেই। স্টারশিপ নামে নতুন একটি রকেট বানাচ্ছে ইলন মাস্কের স্পেসএক্স।

১০০ জন পর্যন্ত যাত্রী বহন করতে পারবে এটি। চাঁদ ও মঙ্গল গ্রহে যাত্রী পরিবহন করা হবে এর মাধ্যমে। পরবর্তীতে পৃথিবীতে যাত্রী পরিবহনের পরিকল্পনা রয়েছে এর মাধ্যমে। -মিরর