২০ এপ্রিল ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হেলিকপ্টারে এসে কওমী ছাত্রদের ছবক দিলেন ভারতীয় মওলানা

হেলিকপ্টারে এসে কওমী ছাত্রদের ছবক দিলেন ভারতীয় মওলানা

নিজস্ব সংবাদদাতা,পটিয়া ॥ হেলিকপ্টারে এসে কওমী ছাত্রদের ছবক (পাঠদান) দিয়ে গেলেন ভারতীয় মওলানা আবুল কাশেম নোমানী। সোমবার সকাল ১১টায় দক্ষিণ এশিয়ার বৃহৎ কওমী মাদ্রাসা চট্টগ্রামের পটিয়া আল জামেয়া আল ইসলামিয়া মাদ্রাসায় ভারতের দেওবন্দ মাদ্রাসার মহা পরিচালক মওলানা কাশেম এলে তাকে লালগালিচায় সংবর্ধনা দেওয়া হয়। কওমী মাদ্রাসার ছাত্রদের ছবক শেষে তিনি দুপুর সাড়ে ১২টার সময় পুনরায় হেলিকপ্টার নিয়ে ফিরে যান।

এসময় উপস্থিত ছিলেন ড. অধ্যাপক আবু রেজা মুহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী এমপি, জামেয়ার সহকারী মহাপরিচালক আবু তাহের নদভী, মাদ্রাসার প্রবীন মুহাদ্দিস হাফেজ মাওলানা মুফতি আহমদ উল্লাহ, জামেয়ার মুহাদ্দিস ও ইসলামী ব্যাংকের শরীয়াহ্ বোর্ডের পরিচালক মুফতি সামশুদ্দিন জিয়া, মাদ্রাসার শিক্ষক মুফাসসির মাওলানা কাজী আকতার হোসাইন, মাওলানা ওবায়দুল্লাহ হামযাহ্, আল্লামা রফিক আহমদসহ পটিয়াসহ চট্টগ্রামের বিভিন্ন কওমীপন্থি মাদ্রাসার প্রধানগন উপস্থিত ছিলেন।

এসময় ভারতের দেওবন্দ দারুল উলুম মাদ্রাসার মহাপরিচালক (মুতামিম) মুফতি আবুল কাশেম নোমানী বিভিন্ন হাদীসের উদ্ধৃতি তুলে ধরেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘আল্লাহর কাছে অতিপ্রিয় উচ্চারনের সহজপথ হচ্ছে যে দ্বীনি শিক্ষা অর্জনের মাধ্যমে তা ব্যক্তি ও সামাজিক জীবনের ব্যবহারের নিশ্চিত করা। এতে করে মানুষের জীবনের মাপকাটি ভারি হয়।

আল্লাহ ও আল্লাহ রাসুলের যে শিক্ষা দিয়েছেন সে শিক্ষাই শিক্ষিত হচ্ছেন কওমী আক্বীদার শিক্ষার্থীরা। তিনি পটিয়া আল জামেয়া আল ইসলামিয়া মাদ্রাসাকে দক্ষিন এশিয়ার দ্বীনি শিক্ষার বাতিঘর হিসেবে প্রশংসা করেন। দাওরায়ে শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যত উন্নতি ও সারা বিশ্বের মুসলমানদের হেফজতের জন্য বিশেষ মুনাজাত করেন।

নির্বাচিত সংবাদ