২৩ এপ্রিল ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইউরো বাছাইয়ে টানা দুই জয় বেলজিয়ামের

ইউরো বাছাইয়ে টানা দুই জয় বেলজিয়ামের
  • হল্যান্ডকে হারিয়ে জার্মানির শুরু, ওয়েলসের পারফর্মেন্সে সন্তুষ্ট রায়ান গিগস

জিএম মোস্তফা ॥ ইউরো ২০২০ বাছাইপর্বে জয়ের স্বাদ পেয়েছে জার্মানি। রুদ্ধশ্বাস ম্যাচে রবিবার তারা ৩-২ গোলে পরাজিত করেছে শক্তিশালী হল্যান্ডকে। জার্মানি ছাড়াও ইউরোর বাছাইপর্বের ম্যাচে জয়ের দেখা পেয়েছে ওয়েলস, রাশিয়া, হাঙ্গেরি, ইজরাইল, স্কটল্যান্ড, নর্দান আয়ারল্যান্ড, পোল্যান্ড ও বেলজিয়াম। ২০১৮ বিশ্বকাপের স্বাগতিক রাশিয়া এদিন ৪-০ গোলে বিধ্বস্ত করে কাজাখস্তানকে। সাইপ্রাসের বিপক্ষে বেলজিয়ামের জয় ২-০ গোলে। এছাড়া পোল্যান্ড লাটভিয়াকে এবং স্কটল্যান্ড সান মারিনোকেও পরাজিত করে একই ব্যবধানে। তবে রবিবার হতাশ করেছে ক্রোয়েশিয়া। হাঙ্গেরির কাছে যে এদিন ২-১ গোলে লজ্জাজনকভাবে হেরে গেছে রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালিস্টরা!

গত বছর রাশিয়া বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছিল জার্মানি। যা, তাদের এ যাবতকালের ইতিহাসে সবচেয়ে বাজে পারফর্মেন্স। বিশ্বকাপের সেই লজ্জাজনক ঘটনা থেকে বেরিয়ে আসতে মরিয়া জোয়াকিম লোর দল। সেই লক্ষ্য নিয়েই যেন ইউরো ২০২০ বাছাই পর্বের মিশন শুরু করে ব্রাজিল বিশ্বকাপের চ্যাম্পিয়নরা। ইউরোতে রবিবার হল্যান্ডের মুখোমুখি হয় জার্মানি। ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে আমস্টারডামে হল্যান্ডের বিপক্ষে ৩-২ গোলে জয় তুলে নেয় লোর শিষ্যরা। ডাচদের মাঠে শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলে জার্মানি। ম্যাচের শুরুতেই লেরয় সানের গোলে এগিয়ে যায় সফরকারীরা। বাঁ পায়ের দুর্দান্ত শটে ডাচদের জালে বল জড়ান সানে। ম্যাচের ৩৪ মিনিটেই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন সার্জি জিনাব্রি। ঘরের মাঠে দুই গোল হজম করে বিরতিতে যায় ডাচরা। তবে বিরতির পরই ম্যাচে ফেরার ইঙ্গিত দেয় স্বাগতিকরা। দ্বিতীয়ার্ধের ৪৮ মিনিটে এক গোল শোধ করে ডি লাইট। মেমফিস ডিপাইয়ে ক্রস থেকে হেডে গোল করেন তিনি।

ম্যাচের ৬৩ মিনিটে নিজেই গোল করে বসেন ডিপাই। সেইসঙ্গে হল্যান্ডকেও সমতায় ফেরান তিনি। ফলে জমে যায় লড়াই। রেফারি শেষ বাঁশি বাজানোর ঠিক আগে জার্মানিকে নাটকীয় এক গোল উপহার দেন মিডফিল্ডার নিকো শুলজ। ম্যাচের ৯০ মিনিটে ডি বক্সের ভেতর থেকে শুলজার দুর্দান্ত গোল করে পূর্ণ তিন পয়েন্ট উপহার দেন জার্মানিকে। ‘সি’ গ্রুপের আরেক ম্যাচে নর্দান আয়ারল্যান্ড ২-১ গোলে পরাজিত করে বেলারুশকে। সেইসঙ্গে টানা দুই ম্যাচে জয়ের স্বাদ পায় তারা। ছয় পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষ স্থানটাও দখল করে রেখেছে নর্দান আয়ারল্যান্ড। এক ম্যাচ খেলে ৩ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে জার্মানি। তাদের চেয়ে এক ম্যাচ বেশি খেলে সমান পয়েন্ট নিয়ে তালিকার ৩ নম্বরে রয়েছে হল্যান্ড।

ইউরো বাছাইপর্বে টানা দুই জয় তুলে নিয়েছে বেলজিয়ামও। রবিবার তারা ২-০ গোলে পরাজিত করেছে সাইপ্রাসকে। ম্যাচ শুরুর ১৮ মিনিটেই এদিন প্রতিপক্ষের জালে দুইবার বল জড়ায় ইডেন হ্যাজার্ড এবং মিচি বাটশুয়াই। বেলজিয়ামের জার্সিতে শততম ম্যাচে গোল করলেন হ্যাজার্ড। চেলসি তারকার উচ্ছ্বাসটাও তাই একটু বেশি। টানা দুই জয়ের ফলে ‘আই’ গ্রুপের শীর্ষে অবস্থান বেলজিয়ামের। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে রাশিয়া। প্রথম ম্যাচে হারলেও ২০১৮ বিশ্বকাপের আয়োজকরা এদিন ৪-০ গোলে উড়িয়ে দেয় কাজাখস্তানকে।

এদিকে, স্লোভাকিয়ার বিপক্ষে ১-০ গোলের জয় দিয়ে ইউরো ২০২০ বাছাইপর্বের মিশন শুরু করেছে ওয়েলস। তারুণ্য ও অভিজ্ঞতার সংমিশ্রণে গঠিত দলের কারণেই এই জয় সম্ভব হয়েছে বলে মনে করেন দেশটির কোচ রায়ান গিগস। কার্ডিফ সিটি স্টেডিয়ামে ম্যাচ শুরুর ৫ মিনিটের মধ্যেই ড্যানিয়েল জেমস গোল করে দলকে এগিয়ে দেন। পুরো ম্যাচেই ২১ বছর বয়সী এই উইঙ্গার নিজেকে দারুণভাবে প্রমাণ করেছেন। আর ওই গোলটিই শেষ পর্যন্ত ম্যাচের ভাগ্য গড়ে দেয়। ম্যাচটিতে দলের তারকা স্ট্রাইকার গ্যারেথ বেলকে স্বাভাবিক ভাবেই বেঁধে রাখা হয়েছিল। আর সেই সুযোগটাই নিয়েছেন জেমস। তার সঙ্গে সতীর্থ দুই তরুণ ফুটবলার ডেভিড ব্রুকস ও হ্যারি উইলসনও ওয়েলসের জয়ে সহযোগিতা করেছেন। তরুণদের ওপর আস্থার ফল শেষ পর্যন্ত প্রমাণিত হওয়ায় দারুণ খুশি গিগস। তবে বেল, জো এ্যালেন ও বদলি খেলোয়াড় এ্যাশলে উইলিয়ামসও তরুণদের এগিয়ে যেতে সহযোগিতা করেছেন। প্রথমার্ধে ওয়েলসের খেলার মধ্যে দারুণ ছন্দ দেখা গেছে। এ প্রসঙ্গে গিগস বলেন, ‘দ্বিতীয়ার্ধে আমাদের ভাগ্য ততটা সহায় ছিল না। আমি মনে করি প্রথমার্ধে আমাদের আরও গোল করা উচিত ছিল। তারপরেও আমি বলব এই জয় আমাদের আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেবে। কিছু কিছু খেলোয়াড় দুর্দান্ত পারফর্ম করেছে, আর তাতেই এই জয় সম্ভব হয়েছে।’