২৩ আগস্ট ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিশ্বকাপ নিয়ে মাশরাফির ভাবনা

বিশ্বকাপ নিয়ে মাশরাফির ভাবনা

অনলাইন ডেস্ক ॥ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের সাফল্য নিয়ে নতুন কিছু বলার নেই। বিশেষ করে ওয়ানডেতে বাংলাদেশ অন্যতম পরাশক্তরি নাম। তবে অনেক সময় বাংলাদেশ অনেক ম্যাচই ফিনিশিংয়ের অভাবে ম্যাচ জিততে পারে না। আবার অনেক সময় ভাল সূচনার পরও ফিনিশিংয়ের অভাবে বড় সংগ্রহ গড়তে পারে না। দুই ক্ষেত্রেই একটি শব্দ বেশ ভাবাচ্ছে বাংলাদেশকে, তা হলো ‘ফিনিশিং’।

বিশ্বকাপ শুরু হতে আর বেশি সময় বাকি নেই। বাংলাদেশ দলের ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকে ভাবাচ্ছে এই ব্যর্থতা। তবে এ নিয়ে কাউকে দোষারোপ করেননি তিনি।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজতি এক অনুষ্ঠানে টাইগার অধিনায়ক বলেন, ‘আমার কাছে অনেকদিন ধরে একটা ব্যাপার মনে হয় যে আমাদের ফিনিশিংয়ে একটু দুর্বলতা আছে। আসলে জুনিয়রদের দোষ দিয়ে লাভ নাই। পুরো দলেরই একটি সমস্যার জায়গা আছে যে আমরা খেলাটা শেষ করতে পারছি না এবং গত দুই-তিন বছরে এমন অনেক ক্লোজ ম্যাচ আমরা হেরেছে। শুধু রান তাড়া করার সময় নয়, এমনকি প্রথমে ব্যাটিং করার সময়েও আমরা ভালো অবস্থান থেকে ভালো স্কোর দাঁড় করাতে পারিনি। আমার কাছে মনে হয় বিশ্বকাপের মতো টুর্নামেন্টে এই জায়গাটি অনকে গুরুত্বর্পূণ। কারণ এমন কিছু ম্যাচ আসবেই। আর শুরুতে নয়টা ম্যাচ আছে, কিছু ম্যাচ আসবে যেগুলো এমন ক্লোজ হব। তাই এটি দলের জয় পরাজয়ের ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখবে।’

বিশ্বকাপ দল নিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এই নির্বাচনের অংশে নেই অবশ্যই। আগেও ক্লিয়ার করেছি, এখনও করছি। দল নির্বাচন আমার হাতে নেই। কিন্তু যে ১৫ জনই আসুক না কেন, তারা পারর্ফম করে আসছে কি না সেটা বিষয় না। আমাদের মূল ফোকাস থাকবে আয়ারল্যান্ড সিরিজি এবং বিশ্বকাপে আমরা দল হিসেবে কেমন করছি সেটা।’

বিশ্বকাপে ভাল করতে হলে মাশরাফির কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো মানসিক ভাবে প্রস্তুত থাকা। এই কারণেই অনেক সময় বাংলাদেশ ম্যাচ শুরুর আগেই চাপ সৃষ্টি করে। তাই অধিনায়ক জানান, এখানে (ডিপিএল) অনেকে উইকেট পেয়েও আর্ন্তজাতিক ক্রিকেটে স্ট্রাগল করছে এবং আমার মতো সিনিয়র ক্রিকেটার বা অন্য যারা আছে তারাও করছে। আবার এখানে খারাপ করেও দেখা গেছে ওখানে গিয়ে আমরা ভালো করছি। তাই দুটি জায়গার মধ্যে আকাশ-পাতাল ব্যবধান। যে কারণে আমি বলছি যে মানসিক দিক থেকে কে তৈরি থাকবে তার ওপরে অনেক কিছু নির্ভর করবে।’

সম্প্রতি ওপেনার লিটন দাসের পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। তবে মাশরাফির আস্থা রয়েছে তার ওপর। লিটনের ব্যাপারে মাশরাফি জানান, ‘লিটন কি কোয়ালিটির খেলোয়াড় সেটা হয়তো সম্প্রতি এক দুটি ম্যাচে আমরা দেখতে পরেছি। এশিয়া কাপ ফাইনালের কথা আমি বলছি। আমার কাছে মনে হয়, হি ক্যান বি এ ডিস্ট্রয়ার (সে বিধ্বংসী একজন)। এই সম্ভাবনা তার মধ্যে আছ। ব্যাটিং কোচও তাকে নিয়ে কাজ করছে। আসলে ধারাবাহিকতাটা গুরুত্বর্পূণ। আশা করছি যে ও যদি ন্যাচারাল ক্রিকেটটা খেলে তাহলে সেটা আমাদের দলের জন্য অনেক বড় অ্যাডভান্টেজ (সুবিধা) হবে।’