১৬ জুলাই ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এফডিসিতে টেলি সামাদের জানাজা সম্পন্ন

এফডিসিতে টেলি সামাদের জানাজা সম্পন্ন

অনলাইন রিপোর্টার ॥ এফডিসিতে বাংলা চলচ্চিত্রের প্রখ্যাত অভিনেতা টেলি সামাদের জানাজা সম্পন্ন হয়েছে। রবিবার (৭ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২টায় এফডিসির জহির রায়হান কালার ল্যাব অডিটরিয়ামের সামনে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

জানাজায় অংশ নেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, তথ্য সচিব আবদুল মালেক, অভিনেতা আলমগীর, অমিত হাসান, জায়েদ খান, সম্রাট, প্রযোজক মুশফিকুর রহমান গুলজার, খোরশেদ আলম খসরু, গায়ক ফকির আলমগীর, পরিচালক দেলওয়ার জাহান ঝন্টু, শাহ আলম কিরণ প্রমুখ।

এসময় তথ্য মন্ত্রণালয়, বিএফডিসি, প্রযোজক সমিতি, শিল্পী সমিতাসহ ও বেশ কয়েকটি সংগঠনের পক্ষ থেকে টেলি সামাদের মরদেহে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। জানাজা শেষে তার মরদেহ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে মুন্সিগঞ্জে, তার নিজ গ্রাম নয়াগাঁওতে। সেখানে পারিবারিক কবরস্থানে তাকে চিরশায়িত করা হবে।

এর আগে, গত শনিবার দুপুর দেড়টায় রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে গুণী এই অভিনেতার জীবনাবসান হয়। প্রায় এক বছর ধরেই শারীরিক নানা সমস্যায় ভুগছিলেন টেলি সামাদ। এর মধ্যে শরীরে অস্ত্রোপচারও করা হয় তাঁর। সবশেষ গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে হঠাৎ করেই আবার অসুস্থ হয়ে পড়েন টেলি সামাদ। তারপরই তাঁকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়। শুক্রবার তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। এরপর তাঁকে আইসিইউতে রাখা হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থাতেই তিনি গতকাল মারা যান।

সত্তরের দশকের শুরুতে রুপালি পর্দায় পা রাখা টেলি সামাদ ছয় শতাধিক বাংলা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।

১৯৪৫ সালের ৮ জানুয়ারি মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখান উপজেলার নয়াগাঁও গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন টেলি সামাদ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা বিভাগের ছাত্র ছিলেন তিনি। ছবি আঁকার নেশার পাশাপাশি অভিনয়ের নেশাও ছিল তাঁর।১৯৬৬ সালে ‘কার বউ’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ঢালিউডে অভিষেক হয় তাঁর। সাড়ে চার দশক ধরে ঢালিউডে কাজ করছেন তিনি। অনিমেষ আইচ পরিচালিত ২০১৫ সালে টেলি সামাদের সর্বশেষ ছবি ‘জিরো ডিগ্রি’ মুক্তি পায়।

টেলি সামাদের অভিনীত উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্রগুলো হলো—‘রিকসাওয়ালার ছেলে’, ‘কুমারী মা’, ‘অশিক্ষিত’, ‘গোলাপী এখন ট্রেনে’, ‘মাটির ঘর’, ‘মায়ের হাতে বেহেস্তের চাবি’, ‘কাজের মানুষ’ ইত্যাদি। এর মধ্যে ‘নয়নমণি’ ও ‘পায়ে চলার পথ’ ছবিতে অভিনয়ের কারণে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পান।