২১ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ব্রহ্মপুত্র ব্রিজে অতিরিক্ত টোল আদায়ের অভিযোগ ভিত্তিহীন

ব্রহ্মপুত্র ব্রিজে অতিরিক্ত টোল আদায়ের অভিযোগ ভিত্তিহীন

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ শেরপুরে জামালপুর-শেরপুর-বনগাঁও সড়কের দ্বিতীয় কিলোমিটার অংশে ব্রহ্মপুত্র ব্রিজে অতিরিক্ত টোল আদায়ের অভিযোগকে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন দাবি করেছেন ইজারাদার মেসার্স মীর ট্রেডার্সের স্বত্ত্বাধিকারী মীর দেলোয়ার হোসেন। তিনি আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে ব্রিজের পাশে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ওই দাবি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, কয়েকদিন আগে একটি বিশেষ মহলের ইন্ধনে অতিরিক্ত টোল আদায়সহ হয়রানীর অভিযোগ তুলে শেরপুর ও জামালপুর জেলা ম্যাক্সী, পিকআপ, ট্রাক্টর ও লেগুনা শ্রমিক ইউনিয়নের ব্যানারে করা মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধের মাধ্যমে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির হীন উদ্দেশ্যে বিভ্রান্তি ও অপপ্রচার চালানো হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে সড়ক ও জনপথ বিভাগের টোল নীতিমালার ২০১৪ মোতাবেক বিভিন্ন পরিবহনের নির্ধারিত টোল এবং জনস্বার্থে ব্রিজের ২ পাশে সাইনবোর্ডে তা সুনির্দিষ্টভাবে প্রকাশের বিষয়টি উল্লেখ করে বলা হয়, প্রকৃতপক্ষে ব্রহ্মপুত্র সেতুর ২০১৮-২০২১ মেয়াদে টোল আদায়ের জন্য প্রতিযোগিতামূলক দরপত্রের মাধ্যমে মেসার্স মীর ট্রেডার্স ইজারাদার নিযুক্ত হয়। এরপর থেকে সরকারি বিধি মোতাবেক নির্ধারিত হারে টোল আদায় করা হলেও একটি মহল শুরু থেকেই বিভ্রান্তিমূলক তথ্য ছড়িয়ে আমাদের ব্যবসায়িক ও সামাজিক সুনাম ক্ষুণেœর অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে। তাই টোল আদায় সংক্রান্ত বিষয়ে প্রকৃত ঘটনা তুলে ধরে তথাকথিত অভিযোগ প্রত্যাখান করে তার নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানো হয়। সেইসাথে নিয়ম-নীতির মধ্যে পরিচালিত শান্তিপূর্ণ টোল আদায় কার্যে প্রশাসন, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, গণমাধ্যম কর্মীসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে শেরপুর ও জামালপুরের প্রায় শতাধিক গণমাধ্যম কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, শেরপুর-জামালপুরের ম্যাক্সী, পিকআপ, ট্রাক্টর ও লেগুনা শ্রমিক ইউনিয়নের ব্যানারে গত সোমবার ব্রহ্মপুত্র সেতুতে অতিরিক্ত টোল আদায়সহ শ্রমিক হয়রানীর অভিযোগ তুলে মানববন্ধন, বিক্ষোভ ও সড়ক অবরোধ করা হয়।