১৯ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাদকের সাথে জড়িত কাউকেই ছাড় নয় ॥ ডিআইজি

মাদকের সাথে জড়িত কাউকেই ছাড় নয় ॥ ডিআইজি

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ রেঞ্জ ডিআইজি মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম বার পিপিএম বলেছেন, মাদকের সাথে জড়িত যেই হোক না কেন, কাউকেই ছাড় দেয়া হবেনা। পুলিশের কোন সদস্য মাদকের সাথে জড়িত থাকার প্রমান পেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। চলতি বছরের মধ্যেই বরিশাল রেঞ্জকে মাদকমুক্ত করা হবে।

মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীদের উদ্দেশ্যে কঠোর হুশিয়ারী উচ্চারন করে ডিআইজি বলেন, সুস্থ্য, সুন্দর ও স্বাভাবিক জীবনে বসবাস করতে চাইলে অনতিবিলম্বে তওবা করে আত্মসমর্পন করতে হবে। নতুবা মাদকের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর জিরো টলারেন্সের শতভাগ বাস্তবায়ন করতে পুলিশ বাহিনী আরও কঠোর হতে বাধ্য হবে। তাই প্রথমপর্যায়ে সকলকে আত্মসমর্পনের সুযোগ দেয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, মেয়েদের শুধু বিয়ে দেয়ার জন্যই বড় করবেন না। তাদের শিক্ষিত করে মানুষ হিসেবে গড়ে তুললে মেয়ের বিয়ের জন্য অভিভাবককে চিন্তা করতে হয়না। বরিশালের আগৈলঝাড়া থানা প্রশাসনের আয়োজনে থানা চত্বরে অনুষ্ঠিত মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ ও নারী নির্যাতন বিরোধী সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে রেঞ্জ ডিআইজি আরও বলেন, রেঞ্জে প্রথম একটি থানাকে মাদকমুক্ত ঘোষণার অংশ হিসেবে আগৈলঝাড়া থানাকে মাদকমুক্ত মডেল থানা হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। এজন্য পুলিশ কাজও করছেন।

ইতোমধ্যে বরিশাল রেঞ্জে আট শতাধিক মাদক ব্যবসায়ী ও সেবনকারী স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাওয়ায় তাদের পুণর্বাসিত করা হয়েছে। যারমধ্যে বরিশাল জেলায় রয়েছে ১৫০ জন। এছাড়া ২৭৫ জনকে পুলিশের তত্বাবধানে মাদক নিরাময় কেন্দ্রে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে, জিআইজি থানার জীর্ণ প্রশাসনিক ও আবাসিক ভবন জরুরি ভিত্তিত্বে নির্মান করে দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির কাছে চারজন মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীরা আত্মসমর্পন করেছেন। তাদেরকে সেলাই মেশিন প্রদানের মাধমে পুণবার্সিত করা হয়েছে।

জেলা পুলিশ সুপার মোঃ সাইফুল ইসলাম বিপিএম এর সভাপতিত্বে গৌরনদী সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুর রব হাওলাদার ও আগৈলঝাড়া থানার ওসি মোঃ আফজাল হোসেনের সঞ্চালনায় বুধবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত সুধী সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মোর্তুজা খান, উপজেলা কমিউিনিটি পুলিশিং সভাপতি ও নবনির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র দাস, মুক্তিযোদ্ধা মহিউদ্দিন মানিক বীর প্রতীক, বিশিষ্ট সাংবাদিক ও সংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব এসএম ইকবাল প্রমুখ।