২২ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আগামী ৫ বছরে রাজশাহীর চেহারা পাল্টে যাবে : মেয়র লিটন

আগামী ৫ বছরে রাজশাহীর চেহারা পাল্টে যাবে : মেয়র লিটন

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন বলেছেন, ২০০৮-১৩ সাল পর্যন্ত প্রথমবার মেয়র থাকাকালে রাজশাহীর উন্নয়নে সাড়ে ৮‘শ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উন্নয়নে গতি এসেছিল। কিন্তু এরপরও রাজশাহীর মানুষ ভুল করে আমাকে কাজের সুযোগ থেকে বঞ্চিত করে। ২০১৮ সালে এসে আবারো সুযোগ পেয়েছি। দেনায় ডুবে থাকা রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনকে তুলতে সময় লাগছে, ব্যাপক পরিশ্রম করতে হচ্ছে। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা থাকলে এতো সময় লাগতো না। দ্রুত উন্নয়নে গতি আসবে, ৫ বছরে রাজশাহীর দৃশমান চেহারা পাল্টে যাবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে নগরভবনের গ্রিনপ্লাজায় রিয়েল এষ্টেট এ্যান্ড ডেভেলপার্স এ্যাসোসিয়েশন (রেডা) উদ্যোগে আয়োজিত দ্বিতীয় আবাসন মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, রাজশাহীতে শিল্পায়ন হয়নি। এটি কৃষিপ্রধান অঞ্চল। বিপুল পরিমাণে আম, টমেটো, আলু, সবজিসহ নানান কৃষিপণ্য উৎপন্ন হয়। আমাদের চাহিদা মিটিয়ে উদ্বৃত্ত থাকে। শুধু কৃষির উপর নির্ভরশীল করে থেকে আমাদের ক্ষতিই হয়েছে। এই জায়গা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।

মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন বলেন, আমি দ্বিতীয়বার দায়িত্ব নেওয়ার ছয় মাসের মধ্যেই আমার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি রাজশাহী-ঢাকা বিরতিহীন ট্রেন আগামী ২৫ এপ্রিল উদ্বোধন হতে যাচ্ছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ট্রেনটির উদ্বোধন করবেন। পদ্মা নদীতে ড্রেজিং শুরু হয়েছে। ভারত-বাংলাদেশ যৌথ উদ্যোগে ড্রেজিং কাজ শুরুর ব্যাপারে আগ্রহী প্রধানমন্ত্রী। ড্রেজিং কাজ সম্পন্ন হলে রাজশাহীতে আন্তর্জাতিক নৌবন্দর গড়ে উঠবে। হয়রত শাহ মখদুম বিমানবন্দরকে আন্তর্জাতিক মানে উন্নতিকরণের পরিকল্পনা হাতে নেয়া হয়েছে। ্রধানমন্ত্রী ইতোমধ্যে তিনটি শিল্পাঞ্চল অনুমোদন দিয়েছেন। দুইটি নতুন সরকারি স্কুল প্রতিষ্ঠার কাজ এগিয়ে চলেছে। রাজশাহী মেডিক্যাল বিশ^বিদ্যালয়ের কাজ এগিয়ে চলছে, এখানে এক হাজার শয্যা হাসপাতালও হবে। চায়নার বিখ্যাত কোম্পানি পাওয়ার চায়নার সঙ্গে আলাপ-আলোচনা হয়েছে। তারা মেগা প্রকল্প তৈরি করে রাজশাহীর সামগ্রিক উন্নয়নে আগ্রহী। সিটি কর্পোরেশন প্রায় তিন হাজার কোটি টাকার একটি প্রকল্প প্রস্তুত করেছে। এসব উন্নয়ন কাজে গতি আসলে ৫ বছরের রাজশাহী চেহারা পাল্টে যাবে। অনুষ্ঠানে মেয়র ব্লিডিং কোড মেনে এবং রাস্তার জন্য জায়গা রেখে বাড়ি তৈরি করার আহ্বান জানান মেয়র।

রিয়েল এষ্টেট এ্যান্ড ডেভেলপার্স এ্যাসোসিয়েশন (রেডা) রাজশাহীর সভাপতি তৌফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন রাজশাহী মহানগর পুলিশের কমিশনার হুমায়ুন কবির ও রাজশাহী চেম্বার অব কর্মাস এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মনিরুজ্জামান মনি। স্বাগত বক্তব্য দেন আয়োজক সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান কাজী।

চারদিনব্যাপী মেলায় ৩২টি স্টল স্থান পেয়েছে। মেলার উদ্বোধন শেষে স্টলগুলো ঘুরে দেখেন মেয়র খায়রুজ্জামান লিটন। স্টল পরিদর্শনের সময় ফিরোজা ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানির স্বত্ত্বাধিকারী মেজবাউল বারী সওদাগর মেয়র খায়রুজ্জামান লিটনের কাছে ‘কিপ রাজশাহী ক্লিন, কিপ রাজশাহী গ্রিন’ স্লোগানকে নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ব্যান্ডিং করার অনুমতি চান। এ সময় তাকে ধন্যবাদ জানিয়ে অনুমতি দেন মেয়র।