২০ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ আসছেন কোচ রোডস, সোমবার শুরু অনুশীলন

আজ আসছেন কোচ রোডস, সোমবার শুরু অনুশীলন
  • ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

মিথুন আশরাফ ॥ নিউজিল্যান্ড সফর শেষেই বিদেশী কোচরা নিজ নিজ দেশে ছুটিতে চলে গিয়েছিলেন। বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের যে কোন খেলা ছিল না। সামনেই শুরু হচ্ছে টানা তিন মাসের বিরামহীন মিশন। সেই মিশন শুরু করার আগে সোমবার শুরু হবে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ক্যাম্প। প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরুর আগেই দলের বিদেশী কোচরা বাংলাদেশে চলে আসবেন। আজ আসছেন প্রধান কোচ স্টিভ রোডস।

বিশ্বকাপ শুরু হবে ৩০ মে। ইংল্যান্ড এ্যান্ড ওয়েলসে হবে এবারের ক্রিকেট বিশ্বকাপ। এ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের মিশন শুরু হবে ২ জুন। এর আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে অংশ নিবে বাংলাদেশ। যে সিরিজকে ধরা হচ্ছে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি মিশন হিসেবে। এ জন্য ১ মে আয়ারল্যান্ডে উড়াল দেয়ার কথা ক্রিকেটারদের। সেখান থেকে ১৮ মে ইংল্যান্ডে যাওয়ার কথা রয়েছে। ত্রিদেশীয় সিরিজ ও বিশ্বকাপকে ঘিরেই প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হবে।

বিশ্বকাপের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করা হয়েছে। দলে আছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা (অধিনায়ক), সাকিব আল হাসান (সহ-অধিনায়ক), তামিম ইকবাল, লিটন কুমার দাস, মুশফিকুর রহীম (উইকেটরক্ষক), মোহাম্মদ মিঠুন, মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ, সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান রুম্মন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মেহেদী হাসান মিরাজ, রুবেল হোসেন, মুস্তাফিজুর রহমান, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও আবু জায়েদ রাহী। এই ১৫ সদস্যের সঙ্গে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে আরও দুইজনকে রাখা হয়েছে। ইয়াসির আলী চৌধুরী ও নাঈম হাসানকে রাখা হয়েছে। ১৭ সদস্যের দল যাবে আয়ারল্যান্ডে। যদি কেউ ইনজুরিতে পড়েন তাহলে তাসকিন আহমেদ, ইমরুল কায়েসের মতো ক্রিকেটাররাও দলে ঢুকে যাওয়ার সুযোগ থাকছে। তবে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজে যদি কেউ বিশেষভাবে ব্যর্থ হন তাহলে ইয়াসির ও নাঈমের সুযোগ ধরা দিতে পারে।

সোমবার থেকে প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু করার জন্য আজ শুধু প্রধান কোচই নন, পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ, ব্যাটিং পরামর্শক নিল ম্যাকেঞ্জি, স্পিন বোলিং কোচ সুনীল যোশি, ফিজিও থিহান চন্দ্রমোহনেরও বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে। জাতীয় দলের স্ট্রেন্থ ও কন্ডিশনিং কোচ মারিও ভিল্লাভারায়ন গত শনিবারই ঢাকায় এসেছেন। বিদেশী কোচিং স্টাফরা নিউজিল্যান্ড সফর শেষে একমাস ছুটি কাটান। সামনেই ব্যস্ত সময়। এর আগে যথেষ্ট বিশ্রাম পেয়েছেন। দল নিয়ে পরিকল্পনা করার যথেষ্ট সুযোগও পেয়েছেন।

বিশ্বকাপের আগে যে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ হবে এ জন্য দেশের মাটিতে খুব বেশি সময় অনুশীলনের সুযোগ পাচ্ছেন না মাশরাফিরা। সোমবার প্রস্তুতি ক্যাম্প শুরু হয়ে আট-নয়দিন বিশ্বকাপের জন্য দেশে অনুশীলন করতে পারবেন। এরপর আয়ারল্যান্ডে চলে যেতে হবে। ত্রিদেশীয় সিরিজে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ ৭ মে প্রতিপক্ষ ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এরপর ৯ মে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে টাইগারদের প্রতিপক্ষ স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড। ১৩ ও ১৫ মে যথাক্রমে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আবার খেলা রয়েছে। প্রতিটি দল দু’বার করে মুখোমুখি হবে একে অপরের। বিশ্বকাপে যাওয়ার আগে বাংলাদেশ পাবে গ্রুপপর্বের চার ম্যাচ। ১৭ মে ফাইনালে খেললে পাঁচ ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছে। ম্যাচের প্রস্তুতি হয়ে যাবে।

আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলার পর বিশ্বকাপের মূল মঞ্চে খেলতে নামার আগে ভারত ও পাকিস্তানের বিপক্ষে কার্ডিফে প্রস্তুতি ম্যাচও খেলবে বাংলাদেশ। সেখানেই বাংলাদেশ দলের কি অবস্থা হবে বিশ্বকাপে তা অনেকটাই বোঝা যাবে।

বিশ্বকাপে এবার কোন গ্রুপ নেই। ১০টি দল পরস্পরের বিপক্ষে লড়াই করবে। চারটি দল পয়েন্ট তালিকায় ওপরে থেকে খেলবে সেমিফাইনালে। এরপর হবে ফাইনাল। ১৪ জুলাই লর্ডসে ফাইনাল ম্যাচটি হবে। বাংলাদেশ প্রথম ম্যাচ খেলবে ২ জুন ওভালে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে। পরেরটি ৫ জুন, একই ভেন্যুতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে। এই একটি ম্যাচই দিবারাত্রিতে খেলবে বাংলাদেশ। ৮ জুন ‘পয়া ভেন্যু’ কার্ডিফে বাংলাদেশ খেলবে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে। ১১ জুন ব্রিস্টলে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শ্রীলঙ্কা। ১৭ জুন টন্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলবেন মাশরাফিরা। ২০ জুন ট্রেন্টব্রিজে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে খেলার পর ২৪ জুন সাউদাম্পটনে বাংলাদেশ পাবে আফগানিস্তানকে। উপমহাদেশের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী ভারত-পাকিস্তানকে বাংলাদেশ পাচ্ছে প্রাথমিকপর্বের প্রায় শেষদিকে। ২ জুলাই বার্মিংহামে ভারতের বিপক্ষে লড়বে বাংলাদেশ। ৫ জুলাই লর্ডসে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। ৯ জুলাই ম্যানচেস্টারে বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল, ১১ জুলাই বার্মিংহামে দ্বিতীয় সেমিফাইনাল। ১৪ জুলাই লর্ডসে ফাইনাল। বাংলাদেশ দল অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে হওয়া ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেছে। ২০১৭ সালে ইংল্যান্ড এ্যান্ড ওয়েলসে হওয়া চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে সেমিফাইনালে খেলেছে। এবারও ইংল্যান্ড এ্যান্ড ওয়েলসে হবে বিশ্বকাপ। তাহলে কী এবার বাংলাদেশ অন্তত সেমিফাইনাল বা ফাইনালে খেলবে? তা সময়ই বলে দেবে। তবে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি ক্যাম্প সোমবারই শুরু হচ্ছে। এ জন্য আজই প্রধান কোচ ইংল্যান্ডের স্টিভ রোডস আসছেন।