২৫ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভিকারুননিসায় স্থায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগের উদ্যোগ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রায় ১০ বছর ধরে স্থায়ী অধ্যক্ষ ছাড়াই চলছে দেশের নামী প্রতিষ্ঠান ভিকারুননিসা নূন স্কুল এ্যান্ড কলেজে। প্রতিষ্ঠানটিতে এবার অধ্যক্ষ নিয়োগের উদ্যোগ নিয়েছে কর্তৃপক্ষ। তবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে স্থায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি দেয়ায় নিয়োগ ঠেকাতে তৎপর হয়ে উঠেছে অভিভাবক নামধারী বিএনপি-জামায়াতপন্থী একটি চক্র। চক্রে যুক্ত হয়েছে স্থানীয় কোচিং ব্যবসায়ীদের একটি অংশও। ঘটনায় ক্ষুব্ধ গবর্নিং বডি শিক্ষক-শিক্ষার্থী অভিভাবকদের অপরাধীদের বিষয়ে সতর্ক থাকার অনুরোধ জানিয়েছে।

অভিযোগ উঠেছে, অধ্যক্ষ নিয়োগ প্রক্রিয়া বাধাগ্রস্ত করে ভর্তি ও নিয়োগ বাণিজ্যসহ নানা রকম অনিয়মের মাধ্যমে ফায়দা হাসিল করতে চায় অসাধুচক্র। এ কাজে প্রতিষ্ঠানটির গবর্নিং বডির একাধিক সদস্য মদদ যোগাচ্ছেন। আগামী ২৬ এপ্রিল প্রতিষ্ঠানে অধ্যক্ষ নিয়োগের লিখিত পরীক্ষা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন গবর্নিং বডির সভাপতি গোলাম আশরাফ তালুকদার। তিনি বলেন, আমরা স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় অধ্যক্ষ নিয়োগ দেয়ার চেষ্টা করছি। কিন্তু একটি চক্র এ কাজে বাধা দিচ্ছে। চক্রটি প্রতিষ্ঠানে বিশৃঙ্খলা পাকানোর চেষ্টা করছে। তারা মূলত বিএনপি-জামায়াতের স্বার্থ হাসিল করতে চায়। তারা দীর্ঘদিন ধরেই নানা অজুহাতে আন্দোলনের নামে দেশের অন্যতম সেরা এই প্রতিষ্ঠানে অস্থিরতা পাকানোর পাঁয়তারা করছেন। অথচ দীর্ঘ সময় ভারপ্রাপ্তদের নিয়ে প্রতিষ্ঠান পরিচালনার কারণে একাডেমিক ও প্রশাসনিক শৃঙ্খলা নষ্ট হচ্ছে।

জানা গেছে, রাজনৈতিক অস্থিরতা, বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষকদের প্রতিবন্ধকতা ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নানা রকম পরিপত্রের কারণে এতদিন স্থায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগ দেয়া যায়নি ভিকারুননিসা নূন স্কুল এ্যান্ড কলেজে। সর্বশেষ গত বছরের ২৮ আগস্ট উচ্চমাধ্যমিক বিদ্যালয় ও উচ্চমাধ্যমিক কলেজের অধ্যক্ষ পদে এবং ডিগ্রী কলেজের উপাধ্যক্ষ পদে নিয়োগের সকল কার্যক্রম স্থগিত করে আদেশ জারি করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। এই আদেশের পর গত পাঁচ মাসে দেশের কোন প্রতিষ্ঠানেই স্থায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগ হয়নি। এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার দাবি জানিয়ে আসছিল বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষ। গত ৫ মার্চ ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদ স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত আদেশে অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ নিয়োগের নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়। আদেশে বলা হয়, ‘বেসরকারী শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জনবল কাঠামো ও এমপিও নীতিমালা ২০১৮’ অনুযায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগের জন্য গত ২৫ ফেব্রুয়ারি শিক্ষা মন্ত্রণালয় পরিপত্র জারি করে। সেখানে বর্ণিত শিক্ষাগত যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা অনুযায়ী বিধি মোতাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দ্বারা পরিচালিত প্রতিষ্ঠানে আগামী তিন মাসের মধ্যে অধ্যক্ষ নিয়োগের নির্দেশ দেয়া হলো।

শিক্ষা বোর্ডের এই নির্দেশনা অনুযায়ী ভিকারুননিসা নূন স্কুল এ্যান্ড কলেজে স্থায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগের জন্য গত ৮ মার্চ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে প্রতিষ্ঠানটির গবর্নিং বডি। এই বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের পর অধ্যক্ষ নিয়োগ কার্যক্রম ঠেকাতে গবর্নিং বডির বিরুদ্ধে বিভিন্ন স্তরে বেনামে ভুয়া অভিযোগপত্র জমা দেয়া, বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষকদের ঐক্যবদ্ধ করে আন্দোলনের উস্কানি দেয়া, নিয়োগ প্রক্রিয়ার পক্ষে থাকা সরকার সমর্থক শিক্ষকদের ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ নানা রকম প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হচ্ছে বলে গবর্নিং বডির সদস্য ও অভিভাবকরা অভিযোগ এনেছেন।