২০ অক্টোবর ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্টের রাষ্ট্রীয় কার্যালয়ে সাপ

লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্টের রাষ্ট্রীয় কার্যালয়ে সাপ

অনলাইন ডেস্ক ॥ পৃথিবীতে নির্বাচন, রাজনৈতিক বিরোধ, সামরিক হস্তক্ষেপ এরকম নানা কারণে অনেক দেশের প্রেসিডেন্টকে তাদের কার্যালয় ছাড়তে হয়েছে। কিন্তু লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্টকে অফিস ছাড়তে হয়েছে সম্পূর্ণ ভিন্ন এক কারণে। বুধবার থেকে নিজের কার্যালয় বাদ দিয়ে বাড়ি থেকে রাষ্ট্রীয় কাজ করতে বাধ্য হচ্ছেন লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়েয়া। আর তার কারণ হল দুটো কালো সাপ। এর আগেও একবার কার্যালয় ছাড়তে হয়েছে দেশটির প্রেসিডেন্টকে। এরপর আর ফিরতেই পারেন নি সেখানে।

তার কারণ হল ২০০৬ সালে এক অগ্নিকাণ্ডে প্রেসিডেন্টের দফতর ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার পর থেকে লাইবেরিয়ার প্রেসিডেন্ট দেশটির পররাষ্ট্র দফতরে বসছেন। প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের গণমাধ্যম বিষয়ক কর্মকর্তা স্মিথ টোবি জানিয়েছেন বুধবার ভবনটির অভ্যর্থনা এলাকার দেয়ালের একটি গর্ত থেকে দুটো কালো সাপ বের হয়ে আসে। স্থানীয় গণমাধ্যমে কর্মচারীদের তোলা একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে দুটি সাপ ধীরে ধীরে নড়ছে।

আর সবাই ভয়ে দুরে দাঁড়িয়ে দেখছে। এখন সেগুলোকে তাড়ানোর চেষ্টা চলছে। মি. টোবি জানিয়েছেন গর্তে ধোঁয়া দিয়ে তাদের বের করে আনার চেষ্টা চলছে। তিনি বলছেন অনেক পুরনো ভবন যার পানি বা পয়নিষ্কাশন ব্যবস্থা থেকে সাপ দুটি এসেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। সাপগুলো এখনো ভবনে আছে কিনা সেটিও বোঝা যাচ্ছে না। অন্তত ২২ এপ্রিল পর্যন্ত সবাইকে দুরে থাকতে বলা হয়েছে। তবে সাপগুলো মারা না হলেও প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়েয়া কার্যালয়ে ফিরবেন বলে জানাচ্ছেন মি. টোবি।

সূত্র : বিবিসি বাংলা

নির্বাচিত সংবাদ