২২ মে ২০১৯  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

৯৩ বছরে পা রাখলেন রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ

ব্রিটেনের রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ রবিবার তার ৯৩তম জন্মদিন পালন করছেন। ব্রিটেনের সবচেয়ে বয়স্ক এবং দীর্ঘ সময় ধরে সিংহাসনে থাকা রানীর পাঁচটি বিশেষ দিকের কথা উল্লেখ করা হলো-

সবচেয়ে বেশি সময় ধরে সিংহাসনে রানী ॥ ইউকে অফিস অব ন্যাশনাল স্ট্যাটিস্টিকসের মতে, ব্রিটেনের ৮০ শতাংশেরও বেশি লোক সিংহাসনে অন্য কাউকে দেখেননি। অর্থাৎ অধিকাংশেরই জন্ম রানীর সিংহাসনে আরোহণের পর। তিনি ১৯৫২ সালের ৬ ফেব্রুয়ারি সিংহাসনে আরোহণ করেন। তিনি উইনস্টন চার্চিলের আমলে সিংহাসনে আসীন হন। এরপর ব্রিটেনের ১৪ প্রধানমন্ত্রী তার অধীনে ছিলেন। এই সময়ে ১২ মার্কিন প্রেসিডেন্টের মধ্যে ১১ জন তার অফিসে তার সঙ্গে দেখা করেন। তিনি তিন হাজার পাঁচ শ’র বেশি বিলে স্বাক্ষর করেন যা আইনে পরিণত হয়েছে।

রানীর জন্ম ॥ রানী ১৯২৬ সালের ২১ এপ্রিল লন্ডনের মেফেয়ার এলাকার ১৭ ব্রুটন স্ট্রীটে জন্মগ্রহণ করেন। জুন মাসের দ্বিতীয় শনিবার তার আরও একটি জন্মদিন রয়েছে যা আনুষ্ঠানিকভাবে পালিত হয়। ১৭৪৮ সালে রাজা দ্বিতীয় জর্জ এই জোড়া জন্মদিনের রীতি শুরু করেন। কারণ, তিনি গ্রীষ্মকালে জন্মদিন পালন করতে চেয়েছিলেন।

পোষা প্রাণী ॥ রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের পশুপ্রীতি রয়েছে। তিনি ঘোড়া ও কুকুর খুব পছন্দ করেন। তার ৩০টির বেশি কুকুর রয়েছে। ১৯৫২ সালে রানীর বাবা রাজা ষষ্ঠ জর্জ মারা যাবার পর তিনি উত্তরাধিকারসূত্রে বেশ কয়েকটি রেসের ঘোড়ার মালিকানা লাভ করেন।

কর ॥ রানীর ওপর যদিও কর বা রাজস্ব দেয়ার আইনগত বাধ্যবাধকতা নেই, তবুও রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ১৯৯২ সাল থেকে স্বেচ্ছায় আয়কর দিচ্ছেন।

প্রযুক্তি ॥ রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথ ঐতিহ্যের অনুসারী হলেও তিনি প্রযুক্তির উন্নয়নের সঙ্গেও ভালই তাল মিলিয়ে চলতে পছন্দ করেন। রানী ১৯৭৬ সালে প্রথম ই-মেইল বার্তা পাঠান, ২০১৪ সালে প্রথম টুইট এবং গতমাসে প্রথম ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন।-এএফপি